Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

এএসপি আনিসুল হত্যা মামলায় ১৫ আসামির বিচার শুরু

  • ৯ নভেম্বর থেকে মামলার শুনানি শুরু হবে
  • নির্যাতন করে হত্যার অভিযোগ
আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৩:৫০ পিএম

ঢাকার আদাবরে মাইন্ড এইড হাসপাতালে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আনিসুল করিম হত্যাকাণ্ডের মামলায় জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের রেজিস্ট্রার আবদুল্লাহ আল মামুনসহ ১৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) এ মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশের জন্য দিন ধার্য ছিল।

এ দিন ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ শেখ ছামিদুল ইসলাম আসামিদের অব্যাহতির আবেদন নাকচ করে এ অভিযোগ গঠন করেন।

এরমধ্য দিয়ে এ মামলার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো।

আসামিদের মধ্যে অসীম কুমার পাল কারাগারে ও সাখাওয়াত হোসেন পলাতক রয়েছেন। বাকি ১৩ আসামি জামিনে রয়েছেন।  

বিচার শুরু হওয়া অন্য আসামিরা হলেন- মাইন্ড এইড হাসপাতালের পরিচালক ফাতেমা খাতুন ময়না, আব্দুল্লাহ আল মামুন ও সাজ্জাদ আমিন, বিপণন কর্মকর্তা আরিফ মাহামুদ জয়, হাসপাতালের সমন্বয়ক রেদোয়ান সাব্বির সজীব, হাসপাতালের কর্মচারী মাসুদ খান, জোবায়ের হোসেন, তানিফ মোল্লা, সজীব চৌধুরী, অসীম কুমার পাল, সাইফুল ইসলাম পলাশ, লিটন আহম্মেদ, ও ফার্মাসিস্ট তানভীর হাসান।

তদন্ত প্রতিবেদনে মাইন্ড এইড হাসপাতালের পরিচালক মুহাম্মদ নিয়াজ মোর্শেদ মৃত্যুবরণ করায় তাকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়। এছাড়া যাকে ঘিরে পুনঃতদন্তের আদেশ আসে সেই ডা. নুসরাত ফারজানার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা না পাওয়ায় মামলার দায় থেকে তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বিচারক মামলার শুনানি শুরুর জন্য ৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।

২০২০ সালের ৯ নভেম্বর এএসপি আনিসুলকে মাইন্ড এইড হাসপাতালে নির্যাতন করে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। 

আনিসুলের মৃত্যুর পর তার বাবা ফয়জুদ্দিন আহমেদ বাদী হয়ে হাসপাতালের পাঁচজন ব্যবস্থাপনা কর্মীসহ ১৫ জনকে আসামি করে আদাবর থানায় হত্যা মামলা করেন।

About

Popular Links