Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শেখ হাসিনা: অসম্পূর্ণ উন্নয়ন সম্পন্ন করতে নৌকায় ভোট চাই

তিনি বলেন, শুধু আওয়ামী লীগই পারে, আর কেউ পারবে না

আপডেট : ১১ নভেম্বর ২০২৩, ০৯:১৬ পিএম

অসম্পূর্ণ উন্নয়ন কর্মসূচি সম্পন্ন করতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ভোট দিতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (১১ নভেম্বর) কক্সবাজারের মাতারবাড়ীতে জনসভায় আওয়ামী লীগ সভাপতি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “নির্বাচন আসছে ও আমি চাই আপনারা নৌকায় (আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রতীক) ভোট দিন। যাতে আমরা আবার আপনাদের সেবা করতে পারি এবং অসমাপ্ত কাজগুলো সম্পন্ন করতে পারি।”

তিনি বলেন, “আওয়ামী লীগ দেশের জনগণের ভোটে ক্ষমতায় এসে টানা তিন মেয়াদে সরকার গঠন করেছে।”

তিনি ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির জন্য রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ এবং নিষেধাজ্ঞা-পাল্টা নিষেধাজ্ঞাকে দায়ী করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “আমরা এটা মোকাবিলা করার চেষ্টা করছি। আমরা মূল্যস্ফীতির হার নিয়ন্ত্রণে পদক্ষেপ নিয়েছি এবং খুব শিগগিরই মূল্যস্ফীতির হার কমবে। মানুষ আরও ভালো জীবনযাপন করতে পারবে।”

তিনি সবাইকে তাদের জমির প্রতিটি ইঞ্চি কৃষিকাজে ব্যবহার করার এবং যতটুকু সম্ভব উৎপাদন করার আহ্বান জানান।

তিনি আরও বলেন, “দয়া করে এক ইঞ্চি জমিও কৃষি উৎপাদন ছাড়া খালি রাখবেন না। আমাদের নিজেদেরই দেশের উন্নয়ন করতে হবে।”

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, “তার বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দেশকে স্বাধীন করেছিলেন এবং জনগণের ভাগ্যের উন্নয়ন করা তার দায়িত্ব।”

তিনি বলেন, “জাতির পিতা বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশের মর্যাদা দিয়েছিলেন এবং তার আদর্শ ও পদাঙ্ক অনুসরণ করে আমরা বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা দিয়েছি। সে লক্ষ্যে জনগণকে নৌকায় ভোট দিতে হবে এবং আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।”

তিনি আরও বলেন, “শুধু আওয়ামী লীগই পারে, আর কেউ পারবে না। অন্যদের দেশপ্রেম এবং জনগণের প্রতি কোনো দায়বদ্ধতা নেই।”

সাধারণ মানুষের ওপর ফের অগ্নিসংযোগের ঘটনায় বিএনপি ও তার সহযোগীদের কড়া সমালোচনা করে শেখ হাসিনা বলেন, “মানুষের মধ্যে যদি মানবতা থাকে, তাহলে সে কাউকে জীবন্ত পোড়াতে পারে না।”

তিনি বলেন, “তাদের একমাত্র কাজ হলো মানুষকে জীবন্ত পোড়ানো এবং সম্পত্তি ধ্বংস করা।”

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “তাই জনগণকে তাদের সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে।”

তিনি জানান, “গণমানুষের উন্নয়ন ও কল্যাণে যে কোনো ধরনের ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত তারা।”

তিনি আরও বলেন, “প্রয়োজনে আমার বাবার মতো রক্ত দিতে প্রস্তুত আমি। আমার একমাত্র কাজ হলো আপনাদের কল্যাণ নিশ্চিত করা।”

মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার পাশা চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন- তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ এবং মহেশখালী ও কুতুবদিয়া আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক।

About

Popular Links