Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

চায়ের দাওয়াতে ডেকে ‘সচিব’ পরিচয় দেওয়া প্রতারককে গ্রেপ্তার

মিরপুর মডেল থানার ওসি বলেন, গ্রেপ্তার রফিক একজন প্রতারক। ৩৫তম বিসিএস পাস করে তিনি বর্তমানে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারে উপপরিচালক পদে আছেন বলে দাবি করেন

আপডেট : ১৭ নভেম্বর ২০২৩, ০১:৪৩ পিএম

চায়ের দাওয়াত দিয়ে মো. রফিকুল হক মিঞা (২৮) নামে এক প্রতারককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। “সিনিয়র সহকারী সচিব” পরিচয়ে প্রতারণা করে আসছিলে তিনি।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) মিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন সংবাদমাধ্যমকে জানান, বৃহস্পতিবার রাতে মিরপুর মডেল থানার ২ নম্বর সেকশনের পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনারের (মিরপুর জোন) অফিস থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মোহাম্মদ মহসীন বলেন, গ্রেপ্তার রফিক একজন প্রতারক। তিনি বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। কিন্তু নিজেকে তিনি পরিচয় দেন সিনিয়র সহকারী সচিব হিসেবে। ৩৫তম বিসিএস পাস করে তিনি বর্তমানে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারে উপপরিচালক পদে আছেন বলেও দাবি করেন। এই পরিচয়ে তিনি ভিজিটিং কার্ডও ছাপান।

ওসি বলেন, “থানায় কোনো প্রয়োজন হলে তার ভিজিটিং কার্ড দেখালে ‘কাজ হয়ে যাবে’ বলে সবাইকে বলেন। তার এমন কথা বিশ্বাস করেই গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সেই ভিজিটিং কার্ড নিয়ে মিরপুর জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার মাসুক মিয়ার কাছে আসেন আনু মিয়া। কার্ড দেখে রফিকের পরিচয় নিয়ে সন্দেহ হলে তাকে চা খাওয়ার দাওয়াত দিয়ে অতিরিক্ত উপকমিশনারের অফিসে ডাকা হয়।”

ডাকার পর রফিকুল থানায় আসেন। তার পরিচয়, কর্মস্থলসহ বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চায় পুলিশ। এ সময় অসংলগ্ন কথা বলা শুরু করেন রফিকুল।

পুলিজ জানায়, পরে রফিকুলের কথিত কর্মস্থলে যোগাযোগ করা হলে তারা এই নামে কেউ নেই বলে জানান। একপর্যায়ে রফিক মিথ্যা পরিচয়ে প্রতারণার কথা স্বীকার করেন।

About

Popular Links