Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অবরোধেও ঢাকার রাস্তায় যানজটের ভোগান্তি

ভোগান্তিতে পড়েন অফিসগামী ও স্কুলগামী যাত্রীরা

আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২৩, ০১:১৬ পিএম

সরকার পদত্যাগের এক দফা দাবি ও জাতীয় সংসদ নির্বাচনের “একতরফা” তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদে বিএনপি-জামায়াত ও সমমনা দলগুলোর ঘোষিত সপ্তম দফায় ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ শুরু হয়েছে।

রবিবার (২৬ নভেম্বর) ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই অবরোধ চলবে মঙ্গলবার ভোর ৬টা পর্যন্ত।

অবরোধের প্রথম দিনে রাজধানীসহ সারাদেশে গণপরিবহন প্রায় চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। সকাল থেকে সড়কে বেড়েছে মানুষের উপস্থিতিও। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তাই বাড়তে থাকে যানজট। যার ফলে ভোগান্তিতে পড়েন অফিসগামী ও স্কুলগামী যাত্রীরা।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস আদালত ও শপিং সেন্টারগুলো চালু থাকায় গাবতলী থেকে মিরপুর রোড হয়ে নিউমার্কেট, শাহবাগ, কারওয়ান বাজার, বিজয় স্মরণী, জাহাঙ্গীর গেট, মহাখালী, বনানী এবং বিমানবন্দর সড়কে অনেকেই যানজটের  ভোগান্তিতে পড়েন।

গত কয়েক সপ্তাহের অবরোধের তুলনায় রবিবার ঢাকায় গণপরিবহন ও ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি মোটরসাইকেল ও রিক্সার সংখ্যা বেশি দেখা গেলেও দূরপাল্লার বাস ও লঞ্চ সার্ভিস বন্ধ রয়েছে৷ তবে কমলাপুর থেকে বেশিরভাগ ট্রেন গন্তব্যের দিকে ছেড়ে গেছে। 

এছাড়া রবিবার বিকেলে আওয়ামীলীগের মনোনীত সংসদ সদস্য প্রার্থীদের নাম ঘোষণার কথা থাকায় গণভবনের আশেপাশে বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী সকাল থেকেই ভিড় করতে শুরু করেন৷ ফলে কল্যাণপুর থেকে আসাদ গেট পর্যন্ত সড়কের উভয় পাশে প্রচণ্ড যানজটের সৃষ্টি হয়।

এদিকে, অবরোধে নাশকতা ঠেকাতে জনবহুল ও গুরুত্বপূর্ণ সড়কের মোড়ে সতর্ক অবস্থায় রয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

অবরোধকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে রাজধানীতে র‍্যাব ফোর্সেসের ১৪৫টি টহল দলসহ সারাদেশে ৪৩০টি টহল দল মাঠে নেমেছে।

সারাদেশে ২৩০ প্লাটুন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মোতায়েন করা হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা ও এর আশপাশের জেলায় ২৮ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

এর আগে, বৃহস্পতিবার বিকেলে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ অবরোধের ঘোষণা দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর।

এদিকে অবরোধকে কেন্দ্র করে শনিবার রাতে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন স্থানে যাত্রীবাহী বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

এর আগে সরকারের পদত্যাগ, দলীয় নেতাকর্মীদের মুক্তি ও নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীন নির্বাচনের দাবিতে গত ২৯ অক্টোবর থেকে হরতাল-অবরোধ পালন করে আসছে বিএনপিসহ সমমনা বিরোধী দলগুলো।

২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশ করতে না পারার প্রতিবাদে ২৯ অক্টোবর সকাল-সন্ধ্যা হরতাল, ৩১ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত অবরোধ, দ্বিতীয় দফায় ৫ নভেম্বর সকাল ৬টা থেকে ৭ নভেম্বর সকাল ৬টা পর্যন্ত অবরোধ, তৃতীয় দফায় ৮ ও ৯ নভেম্বর, চতুর্থ দফায় ১২ ও ১৩ নভেম্বর এবং পঞ্চম দফায় ১৫ ও ১৬ নভেম্বর অবরোধ ঘোষণা করা হয়। এরপর ফের ১৯ ও ২০ নভেম্বর এবং ২২ ও ২৩ নভেম্বর ৪৮ ঘণ্টার হরতালের ডাক দেয় বিএনপি ও সমমনা দলগুলো।

About

Popular Links