Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঢাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ

ঢাবির সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২৩, ০৭:২১ পিএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে নিজ কক্ষে ডেকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই শিক্ষকের পদত্যাগ চেয়ে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) সকাল ১১টার দিকে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে মানববন্ধন করেন তারা। এর আগে মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামালের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী।

অভিযোগে ভুক্তভোগী ছাত্রী জানান, গত ১১ নভেম্বর ইনস্টিটিউটের অফিস কক্ষে ব্যক্তিগত কাজে যান তিনি। এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক তার কক্ষে ডাকেন ভুক্তভোগীকে। এরপর ওই শিক্ষকের কক্ষে গেলে অপ্রাসঙ্গিক কথা বলতে শুরু করেন। নানা রকম সাহায্যের প্রলোভন দেখান; একা দেখা করার প্রস্তাব দেন। একই সময় ভুক্তভোগীর মোবাইল ফোন নম্বর নেন। জোর করে অনলাইনে যুক্ত হন অভিযুক্ত শিক্ষক। ঘটনার পর ভয়ে অভিযুক্ত শিক্ষকের কক্ষ থেকে বের হয়ে ক্যান্টিনে অবস্থান করেন তিনি। কিছু সময় পর তাকে ফোন করে দুপুরের খাবার বা হালকা কোনো খাবার খাওয়ার প্রস্তাব দেন ওই শিক্ষক।

ভুক্তভোগী ছাত্রী বলেন, “এ ঘটনায় মানসিক ট্রমা থেকে বের হতে পারছি না। নিরাপত্তাহীনতায় বাড়িতে চলে গিয়েছিলাম। ফলে ক্লাস করতে পারিনি। এখনো নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।”

এ ঘটনায় অভিযুক্তের পদত্যাগ চেয়ে মানববন্ধন করেছেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, “পরিবার ছেড়ে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসেন; এসে নানা সমস্যার মুখোমুখী পড়তে হয়। এরসঙ্গে যদি শিক্ষকের কাছে যৌন নির্যাতনের শিকার হতে হয়- এটা নিন্দনীয়।”

তারা আরও বলেন, “একজন শিক্ষক যদি এ ধরনের কর্মকাণ্ড করেন, তাহলে নারী শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা কে নিশ্চিত করবে? আমরা চাই, নারী শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করা হোক।”

এ বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক মাকসুদ কামাল সংবাদমাধ্যম দেশ রূপান্তরকে বলেন, “আমি অভিযোগপত্রটি পেয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।” 

About

Popular Links