Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

'জমি নিয়ে বিরোধে' ঘোড়া খুন

শাহআলম জানান, ঘোড়াটি ছিল তার পরিবারের সদস্য।

আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৫:৪৪ পিএম

দিনমজুর শাহআলম। অভাব-অনটনে চলে ছয় সদস্যের সংসার। সংসার চালাতে তার আয়ের একমাত্র উৎস ছিল একটি মাত্র ঘোড়ার গাড়ি। ঘোড়ার গাড়ি চালিয়ে তিনি যেমন সংসার চালাতেন তেমনি দুই সন্তানকে করাতেন লেখাপড়া। এ ছাড়াও ওই টাকা দিয়ে ওষুধ কিনতেন বৃদ্ধ মায়ের জন্য। 

গতকাল শনিবার রাতে শাহআলমের সেই ঘোড়াটিকে ফাঁস লাগিয়ে মেরে ফেলা হয়। টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার বড়চওনা গায়েন মোড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

শাহআলম  উপজেলার বড়চওনা গায়েন মোড় গ্রামের মৃত মাজম আলীর ছেলে।

শাহআলম জানান, ঘোড়াটি ছিল তার পরিবারের সদস্য। প্রতিদিন ঘোড়াটিকে খাবার দিতেন তিনি। সেবাযত্ন করতেন নিয়মিত। তাই প্রিয় ঘোড়াটি হারিয়ে এখন নিঃস্ব তিনি। 

জানা যায়, প্রতিদিনের মতো শাহআলম শনিবার তার ঘোড়াটিকে গোয়াল ঘরে রেখে ঘুমিয়ে পড়েন। রোববার সকালে সেটি আর পাওয়া যায়নি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর বাড়ির পাশে সামাজিক বনায়নে গাছের সঙ্গে গলায় রশি টাঙানো অবস্থায় ঘোড়াটিকে স্থানীয়রা দেখে শাহআলমকে খবর দেয়। 

শাহআলম বলেন, 'আমার সৎভাইদের সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। তারাই আমার উর্পাজনের একমাত্র মাধ্যম ঘোড়াটি মেরে ফেলেছে। আমি এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি চাই। ঘোড়াটি মেরে ফেলায় আমি এখন দিশেহারা।' 

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য মিজানুর রহমান বলেন,ঘোড়া একটি অবলা প্রাণী। তার কোনো দোষ নেই। একটি পশুকে এভাবে গলায় রশি দিয়ে মেরে ফেলা সত্যিই দুঃখজনক। 

এ বিষয়ে সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আইয়ুব আলী বলেন, 'এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।'

About

Popular Links