Friday, June 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সেন্টমার্টিনগামী জাহাজ সাগরে বিকল, চার ঘণ্টা পর উদ্ধার ৫৪ যাত্রী

এ ঘটনায় যাত্রীদের উদ্ধার করে নিরাপদে টেকনাফে ফিরিয়ে নেন কোস্টগার্ড সদস্যরা

আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ১০:২২ পিএম

টেকনাফ থেকে সেন্ট মার্টিন যাওয়ার পথে সাগরে বিকল হওয়া জাহাজ থেকে ৫৪ জন পর্যটককে উদ্ধার করা হয়েছে। জাহাজটি চার ঘণ্টা ধরে সাগরে ভাসছিল। কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের উদ্ধার করেন।

রবিবার (১০ ডিসেম্বর) সকালে টেকনাফ থেকে রওনা দেওয়া জাহাজটি একটি ডুবোচরে আটকে পড়ে। 

এ ঘটনায় যাত্রীদের উদ্ধার করে নিরাপদে টেকনাফে ফিরিয়ে নেন কোস্টগার্ড সদস্যরা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) টেকনাফের ট্রাফিক সুপারভাইজার মো. জহির উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ৫৪ জন যাত্রী নিয়ে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে রওনা দেয় জাহাজটি। বেলা ১১টার দিকে টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌপথে নাইক্ষ্যংদিয়ার নামে এলাকায় সেটি আটকে পড়ে। এভাবে বেলা তিনটা পর্যন্ত প্রায় চার ঘণ্টা সাগরে ভাসমান ছিল জাহাজটি। যাত্রীরা সবাই নিরাপদ রয়েছেন।

এদিকে যাত্রীদের দাবি, ডুবোচর থাকার বিষয়টি জাহাজের নাবিকদের জানা থাকার কথা। তবে নাবিকেরা অদক্ষ হওয়ায় এই ঘটনা ঘটে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই জাহাজের এক যাত্রী জানান, তিনিসহ তার পরিবারের আট সদস্য ছিলেন জাহাজে। চালকের অদক্ষতায় ওই ঘটনা ঘটে। এতে পর্যটকরা ভোগান্তিতে পড়েন। এজন্য জাহাজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

তিনি জানান, মিয়ানমারের জলসীমানার কাছাকাছি জাহাজ আটকে পড়ার ঘটনাটি ঘটে। এজন্য পর্যটকরা আতঙ্কে ছিলেন। প্রায় চার ঘণ্টা ধরে সাগরে ভাসমান থাকায় অনেক যাত্রী কান্নাকাটি শুরু করেন।

যাত্রীরা জানান, জাহাজ থেকে কোস্টগার্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা স্পিডবোটে এসে পর্যটকদের উদ্ধার করে শাহপরীর দ্বীপ জেটিতে নিয়ে যান।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী বলেন, রবিবার বেলা তিনটার পর কোস্টগার্ডের সদস্যরা পর্যটকদের উদ্ধার করেন। এর আগে বেলা ১১টার দিকে মাঝসাগরে জাহাজটি বিকল হয়ে পড়ে।

About

Popular Links