Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

১০ বছর ধরে তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারীর দখলে সরকারি গাড়ি

২০০৯ সাল থেকে গত ১০ বছরে গাড়িটির জন্য পিডিবি থেকে  ৩৫ লাখ ১০ হাজার টাকা ডিজেল খরচ তুলেছেন আলাউদ্দিন

আপডেট : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:০১ পিএম

দুই বছর আগে অবসর নেওয়া বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী ও সিবিএ নেতা আলাউদ্দীন মিয়ার কাছ থেকে একটি পাজেরো গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে।সোমবার (১১ জানুয়ারি) রাজধানীর মতিঝিল এলাকা থেকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) এনফোর্সমেন্ট টিমের অভিযানে গাড়িটি জব্দ করা হয়।

দুদক জানায়, গাড়িটি আটকের সময় চালক মো. আবুল হোসেন জনি এবং নিরাপত্তা প্রহরী মো. সামছু মিয়া ঘটনাস্থলে ছিল। অভিযানকালে দুদক টিম জানতে পারে, প্রতিমাসে গাড়িটির জন্য ডিজেল বরাদ্দ হয় ৪৫০ লিটার, যার আর্থিক মূল্য ২৯ হাজার ২৫০ টাকা। এ হারে প্রতি বছরে জ্বালানি বাবদ ৩ লাখ ৫১ হাজার টাকা খরচ হয়। এভাবে সিবিএ নেতা আলাউদ্দিন ২০০৯ সাল থেকে গত ১০ বছরে গাড়িটির জন্য পিডিবি থেকে ডিজেল খরচ তুলেছেন ৩৫ লাখ ১০ হাজার টাকা। প্রতি মাসের ড্রাইভারের বেতন বাবদ ৪১ হাজার টাকা খরচ হয়। এ পর্যন্ত এ গাড়ির চালককে ৩৭ লক্ষাধিক টাকা বেতন-ভাতা প্রদান করা হয়েছে।

দুদকের মহাপরিচালক মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেয়ে গাড়িটি উদ্ধার করা হয়েছে। গাড়ি উদ্ধারের সময় চালক ছাড়া কেউ ছিলেন না। চালকের বক্তব্য রেকর্ড করে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মুনীর চৌধুরী বলেন, ‘গাড়িটি পিডিবির নামে বরাদ্দ থাকলেও ওই কর্মচারী (আলাউদ্দীন মিয়া) কোনোভাবেই ব্যবহার করতে পারেন না। তিনি ২০১৭ সালে অবসরে গেছেন। তিনি তখন পিডিবির নকশা ও পরিদর্শন পরিদফতরের স্টেনো টাইপিস্ট পদে ছিলেন। গত আগস্টে তার অবসরোত্তর ছুটিও (পিআরএল) শেষ হয়েছে।’

দুদক মহাপরিচালক বলেন, তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীর নামে গাড়িটি কীভাবে বরাদ্দ দেওয়া হলো, এর সঙ্গে পিডিবি বা অন্য কোনও অফিসের যারাই জড়িত থাকুক না কেন, অনুসন্ধানের মাধ্যমে তা বেরিয়ে আসবে। অনুসন্ধানের ভিত্তিতে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

মুনীর চৌধুরী বলেন, ‘অভিযোগ পেলে সরকারে পরিবহন-পুলের এমন অপব্যবহার হচ্ছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হবে।’

About

Popular Links