Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

৮ ডিগ্রিতে নামল তাপমাত্রা

  • নওগাঁয় ৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস
  • পঞ্চপড়ে ৯.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস
আপডেট : ১৩ জানুয়ারি ২০২৪, ১১:৩১ এএম

শীতে বিপর্যস্ত দেশের বিভিন্ন অঞ্চল। কনকনে ঠান্ডায় ব্যহত হচ্ছে দৈনন্দিন কাজকর্ম। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছে নিম্নআয়ের মানুষ।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, শনিবার (১৩ জানুয়ারি) শনিবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে উত্তরের জেলা দিনাজপুরে ৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  নওগাঁয়, ৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং পঞ্চপড়ের তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ৯.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শনিবার ভোর থেকে ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন দিনাজপুর, নওগাঁ, পঞ্চগড়,সহ দেশের প্রায় সব জেলা। ঘন কুয়াশার কারণে দেখা মিলছে না সূর্যের। প্রয়োজন ছাড়া অনেকে ঘর থেকে বের না হলেও জীবিকার তাগিদে শীত উপেক্ষা করেই কাজে বেড়িয়েছেন নিম্ন আয়ের পেশাজীবিরা। বিপাকে পড়েছেন চাষিরাও। তারাও ঠান্ডার প্রকোপের কারণে খেতখামারে কাজ করতে পারছেন না। শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষদের মিলছে না প্রয়োজনীয় গরম কাপড়।

এদিকে শীতের কারণে নিউমোনিয়া, অ্যাজমা, হাঁপানি, শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়াসহ শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশু থেকে বয়স্ক মানুষ। জেলা ও উপজেলার হাসপাতালগুলোর আউটডোরে ঠান্ডাজনিত রোগীরা চিকিৎসা নিচ্ছেন। চিকিৎসার পাশাপাশি শীতজনিত রোগ থেকে নিরাময় থাকতে বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করছেন চিকিৎসকরা।

এদিকে, শুক্রবার সন্ধ্যায় পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাস জানিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এতে বলা হয়, দেশের চার জেলা, কিশোরগঞ্জ, পাবনা, দিনাজপুর ও চুয়াডাঙ্গায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ (৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা) বইছে। তা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশিদ শনিবার সকালে সাংবাদিকদের বলেন, “ঘন কুয়াশার কারণে তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে। তাপমাত্রাও কমছে। দিনের তাপমাত্রা ৫ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে গেছে। এই ধারাবাহিকতায় আজ নওগাঁয় সবচেয়ে কম ৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, “পুরো রংপুর বিভাগ, রাজশাহী বিভাগের কিছু অংশ এবং যশোর, চুয়াডাঙ্গা অঞ্চলের ওপর মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বইতে পারে। আগামী দুই থেকে তিন দিন এটি থাকতে পারে।” 

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, আজও সারা দেশে মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত কুয়াশা থাকবে। ফলে বিমান চলাচল, অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন এবং সড়ক যোগাযোগে সাময়িক বিঘ্ন ঘটতে পারে। আগামী দুই থেকে তিন দিন শীতের অনুভূতি বেশি থাকতে পারে।

About

Popular Links