Wednesday, May 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ইউটিউব দেখে তাহিরপুরের স্কুলছাত্রের তৈরি বিমান উড়ল আকাশে

রিমোটের নিয়ন্ত্রিত বিমানটিকে এক কিলোমিটার দূরত্বে উড়িয়েছে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী আনিসুল

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২৪, ০৯:০৩ পিএম

ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ইউটিউব দেখে বিমান তৈরি করে আকাশে উড়িয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার প্রত্যন্ত হাওড়পাড়ের স্কুলছাত্র আনিসুল হক (১৬)। রিমোট নিয়ন্ত্রিত বিমানটিকে এক কিলোমিটার আকাশে উড়িয়েছে দশম শ্রেণির এই শিক্ষার্থী।

এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বিমানের সঙ্গে ওই কিশোরকে দেখতে ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। এদিকে, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল স্কুলছাত্র আনিসুলকে ২ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

আনিসুল তাহিরপুর উপজেলার সাউদেরখলা গ্রামের হাজী এম জাহের আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র। তার বাবা উপজেলার হাপানিয়া গ্রামের বাসিন্দা আহাদ মিয়া পেশায় কৃষক, মা জাহানারা বেগম গৃহিণী। আনিসুলরা ছয় ভাই ও তিন বোন।

আনিসুলের বিমানটি ১ কেজি ৮ গ্রাম ওজনের। যার দৈর্ঘ্য ৫ ফুট, উচ্চতা ও প্রস্থে সাড়ে ৬ ইঞ্চি। বিমানটিতে দুইটি “ব্রাশলেস ডিসি মোটর” ব্যবহার করা হয়েছে। গতি নিয়ন্ত্রণের জন্য আরও দুটি মোটর যুক্ত করা হয়। বিমানটি নিয়ন্ত্রণে “প্লাইড স্কাই রিমোট” ব্যবহার করেছে আনিসুল।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শৈশব থেকেই বিমান বানানোর নেশা ছিল আনিসুলের। এজন্য সে তার বাবা-মায়ের কাছ থেকে পাওয়া টাকা খরচ না করে জমিয়ে রাখত। সেখান থেকে প্রায় ৩০,০০০ টাকা দিয়ে ঢাকা থেকে বিমান তৈরির খুচরা যন্ত্রাংশ কিনে আনে। দেড় বছরের চেষ্টায় একটি ক্ষুদ্র বিমান তৈরি করতে সক্ষম হয় সে।

সবশেষে গত সোমবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে বাড়ির আঙিনায় বিমান উড়িয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেয় এই স্কুলছাত্র।

আনিসুল জানায়, ১০ বছর বয়স থেকেই নিজের হাতে বিমান তৈরি করে আকাশে ওড়ানোর স্বপ্ন ছিল তার। ইউটিউবে ভিডিও দেখে বিমান তৈরি শুরু। সোমবার তার নির্মিত বিমানটি ১ কিলোমিটার আকাশে উড়ে ফিরে আসে।

বিমানটি আকাশে ওড়াতে পেরে খুবই আনন্দিত আনিসুল। সহযোগিতা পেলে আরও ভালো কিছু করা সম্ভব বলে জানায় সে।

তাহিরপুর উপজেলার বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ইউনুস আলী বলেন, “শিক্ষার্থী আনিসুল অসাধারণ একটি জিনিস তৈরি করেছে। তার এই অসাধারণ কাজে আমরা আনন্দিত ও গর্বিত। আশা করি, সে এমন আরও অনেক কিছু তৈরি করবে।”

এদিকে, আনিসুলের বিমান তৈরিতে খুশি হয়ে তাকে দুই লাখ টাকা উপহার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল।

মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে আনিসুল হক ও তার বাবা আহাদ মিয়াকে আমন্ত্রণ করে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান তিনি। এ সময় আনিসুল ও তার বাবা আহাদসহ উপস্থিত সবাইকে মিষ্টিমুখ করানো হয়।

About

Popular Links