Monday, May 27, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

'নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ'-এ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ!

‘বেস্ট ইউজ অব ডাটা’ ক্যাটাগরিতে ক্যালেফোর্নিয়া, কুয়ালালামপুর ও জাপানের তিনটি দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে  শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের 'সাস্ট অলিক'। এছাড়া 'বেস্ট ইউজ অব হার্ডওয়ার' ক্যাটাগরিতেও শীর্ষ দশে জায়গা করে নিয়েছে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘প্ল্যানেট কিট’।

আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:৩১ পিএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসার উদ্যোগে আয়োজিত ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের বৈশ্বিক পর্যায়ে অংশ নিয়ে প্রথমবারের মত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্বকারী দল হিসেবে চ্যাম্পিয়ন হয় শাবির দল 'সাস্ট অলিক'। 

মোট ছয়টি ক্যাটাগরির মধ্যে ‘বেস্ট ইউজ অব ডাটা’ ক্যাটাগরিতে ক্যালেফোর্নিয়া, কুয়ালালামপুর ও জাপানের তিনটি দলকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে সাস্ট অলিক। এছাড়া 'বেস্ট ইউজ অব হার্ডওয়ার' ক্যাটাগরিতেও শীর্ষ দশে জায়গা করে নিয়েছে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘প্ল্যানেট কিট’।

বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্বকারী দল সাস্ট অলিকের সদস্যরা হলেন- শাবির কম্পিউটার সায়েন্স ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই) বিভাগের সহকারি অধ্যাপক বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী (মেন্টর), পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী এসএম রাফি আদনান, ভূগোল ও পরিবেশ বিদ্যা বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী কাজী মাইনুল ইসলাম, একই বিভাগের ২০১৩-১৪ সেশনের শিক্ষার্থী আবু সাদিক মাহদি ও একই বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী সাব্বির হাসান।

এ বছর নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের সেরা প্রকল্প খুঁজে বের করতে পৃথিবীর প্রায় দুইশ'রও বেশি শহরে প্রতিযোগিতার আয়োজন করে নাসা।

বাংলাদেশের নয়টি শহর থেকে প্রাথমিকভাবে দুই হাজারের বেশি প্রজেক্ট জমা পড়ে। আর সেখান থেকে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার সুযোগ পায় মাত্র আটটি প্রকল্প। পরবর্তীতে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ৭৯টি দেশের বাছাইকৃত ২৭২৯টি দলের সঙ্গে লড়াই করে চ্যাম্পিয়ন হয় এই দলটি।

সাস্ট অলিকের মেন্টর বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী জানান, আমাদের প্রকল্পের নাম ছিল ‘লুনার ভিআর’ যা একটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি এ্যাপ। নাসা প্রদত্ত বিভিন্ন ডাটা ব্যবহার করে এই অ্যাপটি তৈরি করা হয়েছে। অ্যাপটির মাধ্যমে নাসা আপোলো ১১ মিশন এর ল্যান্ডিং এরিয়া ভ্রমণ, চাঁদ থেকে সূর্যগ্রহণ দেখা এবং চাঁদকে একটি স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ভার্চুয়ালভাবে আবর্তন করা যাবে।

সাস্ট অলিকের কনিষ্ঠ সদস্য সাব্বির হাসান জানান, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি নিয়ে আমরা অনেক স্বপ্ন দেখি। বিশেষ করে শিক্ষা ক্ষেত্রে এইসব অ্যাপস খুব কার্যকর হবে বলে আমি মনে করি।

About

Popular Links