Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নরসিংদী জেলা প্রশাসকের ব্যতিক্রমী উদ্যোগে চাকরি পেলো ২১১ জন চাকুরী প্রত্যাশী

জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইনের চিন্তাপ্রসূত 'জব কর্নার'-এর মূল লক্ষ্য ছিল শিল্প অধ্যুষিত নরসিংদী জেলায় বেকারত্বের হার কমানো। 

আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮:৪১ পিএম

জেলা প্রশাসন নরসিংদী'র একটি অন্যতম প্রয়াস ছিলো ‘জব কর্নার’ স্থাপন। জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইনের চিন্তাপ্রসূত এই জব কর্নারের মূল লক্ষ্য ছিল শিল্প অধ্যুষিত নরসিংদী জেলায় বেকারত্বের হার কমানো। উন্নয়ন মেলার সমাপনী দিনেই নরসিংদী চেম্বার অফ কমার্সের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসক ১২জন চাকুরী প্রত্যাশীকে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের নিয়োগপত্র হস্তান্তর করেন।

রবিবার আরএফএল পাবলিক স্কুলে এক অনাড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত প্রার্থীরা চাকুরির প্রাথমিক ধাপ (শিক্ষানবিশকাল) সফলভাবে সম্পন্ন করায় ২১১ জন প্রার্থীকেই নিয়োগপত্র তুলে দেন নরসিংদীর জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন।

গত বছর অক্টোবর মাসে জেলা শিল্পকলা একাডেমির প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত জাতীয় উন্নয়ন মেলায় প্রাণ আরএফএল গ্রুপের স্টলে চাকুরি প্রার্থীদের জীবন বৃত্তান্ত (সিভি) সংগ্রহ করা হয়েছিল। সংগৃহীত শত শত সিভি থেকে যোগ্যতা অনুযায়ী যাচাই- বাছাই শেষে ২১১ জনকে প্রাণ আরএফএল গ্রুপ প্রাথমিকভাবে নিয়োগ প্রদান করে। এর প্রায় তিন মাস পর নিয়োগপ্রাপ্ত প্রার্থীরা চাকুরির প্রাথমিক ধাপ (শিক্ষানবিশকাল) সফলভাবে সম্পন্ন করায় তাদের হাতে নিয়োগপত্র তুলে দেয়া হয়। 

সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন বলেন, "জেলা প্রশাসনের এই মহতী উদ্যোগ ও প্রাণ আরএফএল গ্রুপের এই সহযোগিতা ২১১টি পরিবারের মুখে হাসি ফুটিয়েছে। নরসিংদীর অন্যান্য বৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহও এই উদ্যোগের সাথে শীঘ্রই শামিল হবেন এবং পর্যায়ক্রমে উন্নয়ন মেলার ‘জব কর্নারে’ নরসিংদীসহ দেশের অন্যান্য জেলা থেকে প্রাপ্ত যোগ্য প্রার্থীদের সিভি নির্দিষ্ট উপায়ে যাচাই-বাচাইপূর্বক তাদের নিয়োগ প্রদান করা হবে"। 

About

Popular Links