Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বাথরুমে বোমা বিস্ফোরণ, বরিশালে দুই পুলিশ সদস্য আহত

ব্যাগ থেকে ছয়-সাতটি বোমা বের করে বালতিতে রাখতে গেলে বিকট শব্দে সেগুলো বিস্ফোরিত হয়

আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৮:২২ পিএম

বরিশালের গৌরনদী পৌর এলাকায় একটি বাড়ির বাথরুম থেকে বোমা উদ্ধারের সময় বিস্ফোরণে পুলিশ সদস্যসহ তিনজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার বড় কসবা এলাকার বাসিন্দা মাসুম হাওলাদারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- গৌরনদী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) কামাল হোসেন, কনস্টেবল মিজানুর রহমান ও বাড়ির মালিক মাসুম হাওলাদার। তাদের মধ্যে মাসুমের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

প্রত্যক্ষদর্শী মাসুমের আত্মীয় সেন্টু হাওলাদার বলেন, “মাসুম বাথরুমে একটি ব্যাগে ককটেল সদৃশ বস্তু দেখতে পান। বিষয়টি জরুরি সেবা ৯৯৯ এ জানালে পুলিশ এসে উদ্ধারকাজ শুরু হয়। এ সময় বস্তুটি বিস্ফোরিত হলে এসআই কামাল হোসেন, কনস্টেবল মিজান ও বাড়ির মালিক মারাত্মক আহত হন।”

“মাসুমকে তাৎক্ষণিকভাবে অ্যাম্বুলেন্সে করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পুলিশ সদস্যদের বরিশাল বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালে নেওয়া হয়,” যোগ করেন তিনি।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মাজাহারুল ইসলাম বলেন, “মাসুম তার বাড়িতে একা থাকেন, সেখানে তিনটি বাথরুম রয়েছে, এর মধ্যে মধ্যে ব্যবহার অনুপযোগী দুটি বাথরুমে তালা দেওয়া থাকে। এদিন সকালে একটির দরজা খোলা ও এর ভেতরে একটি ব্যাগ দেখতে পান তিনি। বিষয়টি ৯৯৯-এর মাধ্যমে পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে পুলিশ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এসে বোমা অপসারণের কাজ শুরু করে। ব্যাগ থেকে ছয়-সাতটি বোমা উদ্ধার করে পানিভর্তি বালতিতে রাখতে গেলে বিকট শব্দে সেগুলো বিস্ফোরিত হয়। এতে তিনজন মারাত্মকভাবে জখম হন। খবর পেয়ে থানা থেকে আরও কয়েকজন পুলিশ সদস্য ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।”

তিনি আরও বলেন, “অবস্থার অবনতি ঘটলে এসআই কামাল হোসেন ও কনস্টেবল মিজানকে বরিশাল পুলিশ হাসপাতালে এবং মাসুম হাওলাদারকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বোমায় মোড়ানো লাল-কালো টেপ, জারের কাঠি, লোহার পাতসহ বোমা তৈরির উপকরণ উদ্ধার করেছে।”

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

About

Popular Links