Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নতুন সাত প্রতিমন্ত্রী, কে কোন মন্ত্রণালয়ে

বঙ্গভবনে নতুন সাত প্রতিমন্ত্রীকে শপথ পড়ান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন

আপডেট : ০১ মার্চ ২০২৪, ০৯:৫১ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান মন্ত্রিসভায় নতুন করে জায়গা পাওয়া সাত প্রতিমন্ত্রীকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। 

শুক্রবার (১ মার্চ) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

এর আগে সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে নতুন এই সাতজন প্রতিমন্ত্রীকে শপথ পড়ান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন।

নতুন প্রতিমন্ত্রীদের মধ্যে মো. শহীদুজ্জামান সরকারকে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী; রাজশাহী-৫ আসনের মো. আবদুল ওয়াদুদকে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রী; চট্টগ্রাম–১৪ আসনের মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরীকে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী; রোকেয়া সুলতানাকে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী; বেগম শামসুন নাহারকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী; বেগম ওয়াসিকা আয়শা খানকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এবং বেগম নাহিদ ইজাহার খানকে সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

গত ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর ১১ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে টানা চতুর্থবারের মতো সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। ওই দিন প্রধানমন্ত্রীসহ ৩৭ জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী শপথ নেন। মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী বাদে পূর্ণ মন্ত্রী রয়েছেন ২৫ জন এবং প্রতিমন্ত্রী ১১ জন। ৩৭ সদস্যের এই মন্ত্রিসভায় কোনো উপমন্ত্রী নেই। এবার ৭ জন প্রতিমন্ত্রী যুক্ত হলেন। এ নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর সংখ্যা দাঁড়াল ১৮। সব মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিসভার সদস্যসংখ্যা দাঁড়াল ৪৪–এ।

আওয়ামী লীগের এর আগের মন্ত্রিসভায় পূর্ণ মন্ত্রী ২৫-২৬ জনে সীমাবদ্ধ ছিল। তবে প্রতিমন্ত্রী ছিলেন ২০ জনের মতো। এ ছাড়া তিনজন উপমন্ত্রী ছিলেন। সব মিলিয়ে আগের মন্ত্রিসভা ছিল ৪৯ সদস্যের।

এত দিন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ছিল। এখন থেকে তার হাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব থাকবে।

About

Popular Links