Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

সাবেক পুলিশ পরিদর্শকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা

বিবরণীতে তিনি কোনো অস্থাবর সম্পদের তথ্য উল্লেখ করেননি

আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৯ পিএম

দুই কোটি টাকা মূল্যেরও বেশি স্থাবর ও অস্থাবর সম্পদের তথ্য গোপন করার অভিযোগে রাজশাহীতে পুলিশের এক সাবেক পরিদর্শকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

সোমবার (১ এপ্রিল) দুপুরে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি করেন দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ইসমাইল হোসেন।

আসামি ফরিদুল ইসলাম খানের (৬৩) সর্বশেষ কর্মস্থল ছিল রাজশাহী পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই)। অবসরের পর তিনি শহরের বড়কুঠি মহল্লায় বসবাস করে আসছেন। তার গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জ সদরের সুবর্ণগাতি এলাকায়।

দুদক সূত্র জানায়, অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ উঠলে ফরিদুল ইসলাম খানের সম্পদ বিবরণী চেয়ে নোটিশ দেয় কমিশন। ২০২০ সালের ২২ সেপ্টেম্বর তিনি সম্পদ বিবরণী জমা দেয়। এতে তিনি মোট ১৪ লাখ ৬২ হাজার ৭০০ টাকার স্থাবর সম্পদের বিবরণ দেন। বিবরণীতে তিনি কোনো অস্থাবর সম্পদের তথ্য উল্লেখ করেননি।

এরপর দুদকের অনুসন্ধানে তার নামে ২৮ লাখ ৯১ হাজার ৬১৯ টাকার স্থাবর এবং ১ কোটি ৯৯ লাখ ৯৪ হাজার ৩৬৮ টাকার অস্থাবর সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়। অর্থাৎ যাচাইয়ে তার নামে মোট ২ কোটি ২৮ লাখ ৮৫ হাজার ৯৮৭ টাকার মোট সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়। 

তিনি মোট ২ কোটি ১৪ লাখ ২৩ হাজার ২৮৭ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেন বলে উঠে আসে তদন্তে।

দুদক জানিয়েছে, আয়বহির্ভূত অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং অসৎ উদ্দেশ্যে সম্পদের তথ্য গোপন করার অভিযোগে সাবেক এই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। দ্রুতই মামলার অভিযোগপত্র দিয়ে তাকে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

অভিযোগের বিষয়ে কথা বলতে অভিযুক্ত সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম খানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।

About

Popular Links