Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

নরসিংদীতে প্রকাশ্যে ইউপি সদস্যকে গুলি ও গলা কেটে হত্যা

গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর রুবেল মাটিতে লুটিয়ে পড়েন

আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৯ পিএম

নরসিংদীতে রুবেল আহমেদ (৩৪) নামে এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্যকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গুলি চালানোর পর মৃত্যু নিশ্চিত করতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এবং গলা কেটে হত্যা করা হয়। নিহত রুবেল সদর উপজেলার আমদিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে উপজেলার আমদিয়া ইউনিয়নের পাকুড়িয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। মাধবদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজলে রাব্বি ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, দুপুর দেড়টার দিকে মোটরসাইকেলে নরসিংদী জজ কোর্ট এলাকা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন রুবেল। পথে পাকুড়িয়া এলাকায় প্রাইভেটকার নিয়ে ওঁৎ পেতে থাকা একদল দুর্বৃত্ত তাকে লক্ষ্য করে পরপর কয়েকটি গুলি চালায়। গুলিবিদ্ধ হয়ে রুবেল মোটরসাইকেল থেকে পড়ে যান। তখন হত্যাকারীরা গলাকেটে তার মৃত্যু নিশ্চিত করে পালিয়ে যায়। 

এদিকে, ইউপি সদস্যকে হত্যার খবর জানাজানি হলে ঘটনাস্থলে শত শত মানুষ ভিড় জমায়। এ ঘটনার পর এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

নরসিংদীর পুলিশ সুপার (এসপি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, “ইউপি সদস্যকে হত্যার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করতে কাজ করছে পুলিশ। পরিবারের অভিযোগগুলো আমলে নেওয়া হচ্ছে।”

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক স্থানীয় জানান, ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সদস্য নির্বাচিত হন রুবেল। নির্বাচনে রুবেলের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ইমরুল নামে এক প্রভাবশালী তরুণ। নির্বাচনি প্রচারণায় দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে একাধিকবার হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে। নির্বাচন পরবর্তী সময়ে দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর দ্বন্দ্ব আরও বেড়ে যায়। এই দ্বন্দ্বের জেরই এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে।

About

Popular Links