Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রচণ্ড গরমে টাঙ্গাইলে সিল্কসিটি ট্রেনে আগুন, আতঙ্কে আহত ১০ যাত্রী

আগুন লাগার খবরে আতঙ্কে যাত্রীদের কেউ কেউ দরজা-জানালা দিয়ে লাফিয়ে নামার চেষ্টা করেন

আপডেট : ২৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩৩ পিএম

চলমান তাপপ্রবাহের মধ্যে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায় রাজশাহীগামী সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে আতঙ্কিত হয়ে হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে অন্তত ১০ যাত্রীর আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনার প্রায় ১ ঘণ্টা ২৫ মিনিট পর ট্রেনটি রাজশাহীর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বিকেল ৫টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু রেল সংযোগ পথে উপজেলার মহেড়া রেলওয়ে স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তাপপ্রবাহের কারণে ট্রেনের হাইড্রোলিক ব্রেক থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। তবে ট্রেনটি স্টেশন এলাকায় থাকায় বড় ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। আগুন লাগার খবরে আতঙ্কে যাত্রীদের কেউ কেউ দরজা-জানালা দিয়ে লাফিয়ে নামার চেষ্টা করেন। এ সময় অন্তত ১০ জন যাত্রী আহত হন।

মহেড়া রেলস্টেশন সূত্রে জানা গেছে, বিকেল ৫টার দিকে ঢাকাগামী কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস ট্রেনকে যাওয়ার সুযোগ করে দিতে (ক্রসিং) সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনটি মহেড়া স্টেশনে থামানো হয়। এসময় প্রচণ্ড গরমে “ট” বগি থেকে কয়েকজন যাত্রী নিচে নেমে বগির পেছনে হাইড্রোলিক ব্রেকে আগুন দেখতে পান। তারা বিষয়টি স্টেশন মাস্টারকে জানান। পরে রেলস্টেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ট্রেনের নিরাপত্তাকর্মীরা মিলে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

আগুনের খবরে যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এসময় ভয়ে যাত্রীদের কেউ কেউ বগির জানালা-দরজা দিয়ে লাফিয়ে নামার চেষ্টা করেন। জানালা দিয়ে নামার সময় অনেকের হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কেটে যায়।

মহেড়া রেলস্টেশন মাস্টার সোহেল খান বলেন, “সিল্কসিটি এক্সপ্রেস ট্রেনটি থামানোর সময় গরমের কারণে ট্রেনের হাইড্রলিক ব্রেক থেকে আগুন লাগে। যাত্রীরা তাৎক্ষণিক জানতে পারায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেনি। ট্রেন থেকে লাফিয়ে নিচে নেমে আহত কয়েকজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।”

এদকে, এ ঘটনার কারণে সিরাজগঞ্জগামী “সিরাজগঞ্জ এক্সপ্রেস” ট্রেনটি মির্জাপুর রেলস্টেশন থেকে কিছুটা বিলম্বে ছাড়ে। 

About

Popular Links