Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

তীব্র গরমে ঢাকার বায়ুদূষণ যেন ‘মরার ওপর খাঁড়ার ঘা’

বায়ুদূষণের প্রভাবে শুধু শরীর নয়, ক্ষতিগ্রস্ত হয় ত্বকও

আপডেট : ২৯ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৩৭ পিএম

ঘনবসতিপূর্ণ ঢাকা দীর্ঘদিন ধরে বায়ুদূষণে ভুগছে। প্রায়ই বায়ুদূষণের শহরের তালিকায় প্রথম দিকে অবস্থান থাকছে ঘনবসতিপূর্ণ শহরটির। এর মধ্যেই প্রায় এক মাস ধরে তীব্র গরমে পুড়ছে রাজধানী ঢাকাসসহ সারাদেশ, চলছে তাপপ্রবাহ। আর এই গরম এবং বায়ুদূষণ মিলে নাভিশ্বাস উঠেছে রাজধানীবাসীর।

এর মধ্যেই সোমবার (২৯ এপ্রিলৈ) বায়ুদূষণে বিশ্বের ১০০টি শহরের মধ্যে সকাল ১০টার দিকে ঢাকার অবস্থান সপ্তম।

আইকিউএয়ারের বাতাসের মানসূচকে এ সময় ঢাকার স্কোর ১৫২। বায়ুর এই মান “অস্বাস্থ্যকর” ধরা হয়।

গবেষণা বলছে, বায়ুদূষণ ক্রমাগত বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ও অক্ষমতার ঝুঁকির কারণগুলোর মধ্যে একটি। দীর্ঘদিন দূষিত বায়ুতে শ্বাস নেওয়ার ফলে হৃদরোগ, শ্বাসযন্ত্রের রোগ, ফুসফুসের সংক্রমণ ও ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই গরমে বাড়তি সতর্কতার পাশাপাশি বায়ুদূষণ থেকে সুরক্ষিত থাকারও পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মতে, বায়ুদূষণে বিশ্বব্যাপী প্রতিবছর মূলত স্ট্রোক, হৃদরোগ, দীর্ঘস্থায়ী বাধা পালমোনারি রোগ, ফুসফুসের ক্যান্সার ও তীব্র শ্বাসকষ্ট সংক্রমণের ফলে আনুমানিক ৭০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়।

তবে বায়ুদূষণের প্রভাবে শুধু শরীর নয়, ক্ষতিগ্রস্ত হয় ত্বকও। তাই ত্বকের বাড়তি যত্ন নেওয়া জরুরি। বিশেস করে যারা কাজের প্রয়োজনে ঘরের বাইরে যান, তাদের জন্য বিষয়টি বেশি জরুরি। এক্ষেত্রে বাইরে থেকে বাসায় ফিরে নিতে হবে ত্বকের কিছু বাড়তি যত্ন।

বায়ুদূষণের পরিস্থিতি নিয়মিত তুলে ধরে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আইকিউএয়ার। ঢাকার বায়ুদূষণ থেকে বাঁচতে আইকিউএয়ার যে পরামর্শ দিয়েছে, তার মধ্যে আছে ঘরের বাইরে গেলে সংবেদনশীল গোষ্ঠীর মানুষকে মাস্ক পরতে হবে। এছাড়া ঘরের বাইরে ব্যায়াম না করারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের পাঁচটি ধরনকে ভিত্তি করে- বস্তুকণা (পিএম ১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজন (৩৩)।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদনে ঢাকার বায়ুদূষণের তিনটি প্রধান উৎস হিসেবে ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলোকে চিহ্নিত করা হয়।

About

Popular Links