Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

পাহাড়ে আরসার আস্তানায় অভিযান: গ্রেপ্তার ২

তাদের কাছ থেকে জব্দ করা বিস্ফোরক, গ্রেনেড,আইইডি এবং রকেট শেল ধ্বংস করেছে সেনাবাহিনীর বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট

আপডেট : ১৫ মে ২০২৪, ০২:৫১ পিএম

কক্সবাজারের উখিয়ায় গহীন পাহাড়ে অভিযান চালিয়ে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) কমান্ডার মাস্টার সলিমুল্লাহ (৩৮) ও তার সহযোগী মো. রিয়াজকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। জব্দ করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ দেশি-বিদেশি অস্ত্র, গ্রেনেড ও রকেট শেল।

বুধবার (১৫ মে) দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে এক সংক্ষিপ্ত প্রেস ব্রিফিংয়ে র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচাক কমান্ডার আরাফাত ইসলাম এসব তথ্য জানান। দুপুর ১টার দিকে সেনাবাহিনীর বোম্ব ডিসপোজাল টিমের একটি ইউনিট সেখানে গিয়ে জব্দ করা বিস্ফোরক, গ্রেনেড,আইইডি এবং রকেট শেল ধ্বংস করে।

র‍্যাব কর্মকর্তা আরাফাত জানান, উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প-২০ এক্সটেনশন সংলগ্ন লাল পাহাড়ে আরসার একটি ঘাঁটি ছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে র‍্যাব সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় তিনটি রাইফেল, পাঁচটি গ্রেনেড, ১০টি দেশে তৈরি হ্যান্ড গ্রেনেড, একটি বিদেশি রিভলবার, নয়টি নাইন এমএম, একটি এলজি, তিনটি কার্তুজ ও ১৩টি ককটেল উদ্ধার করা হয়। র‍্যাবের হাত থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় আরসা কমান্ডার মাস্টার সলিমুল্লাহ (৩৮) ও তার সহযোগী মো. রিয়াজকে (২৭) গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরও জানান, সম্প্রতি ক্যাম্পের হেড মাঝিসহ কয়েক রোহিঙ্গাকে গুলি ও গলা কেটে হত্যার ঘটনা ঘটে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাব ক্যাম্পে গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ায়। সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ক্যাম্পসংলগ্ন গহীন পাহাড়ে মিয়ানমারের সন্ত্রাসী সংগঠন আরসার আস্তানা শনাক্ত করা হয়। 

“অভিযানে পুরো লাল পাহাড় ঘিরে ফেলে র‍্যাব। টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা গুলিবর্ষণ শুরু করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে আস্তানা থেকে আগ্নেয়াস্ত্রগুলো উদ্ধার করা হয়।”

About

Popular Links