Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজশাহীর গুটি আম পাড়া শুরু

এবার আম বাজারে আসতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে

আপডেট : ১৬ মে ২০২৪, ১০:৫৮ এএম

রাজশাহীতে বাগান থেকে আম পাড়া শুরু হয়েছে। জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী, বুধবার (১৫ মে) থেকে গুটিজাতীয় আম পাড়া শুরু হয়। এখন ক্রেতা ও বিক্রেতারা অপেক্ষায় রয়েছেন- গোপালভোগ ও হিমসাগর জাতের আমের জন্য।

তবে আম পাড়া শুরু হলেও আম চাষিরা বলছেন, এবার আম বাজারে আসতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে।

রাজশাহী নগরীর শাল বাগান এলাকার ফল বিক্রেতা মোশরারফ হোসেন জানান, আম নামানো কেবল শুরু হয়েছে। গুটি জাতের এই আম সেভাবে কেউ খেতে চায় না। তাই বাজারে আম ওঠেনি। গোপালভোগ-হিমসাগর আসলে চাহিদা বাড়বে। তখন থেকে আমের দাম নির্ধারণ করা হবে।

রাজশাহী-চাঁপাই ফুড অ্যাগ্রো প্রডিউসারের সভাপতি আনোয়ারুল হক বলেন, “প্রশাসনের বেধে দেওয়া সময়ের মধ্যে আম নামানো শুরু করেছি। বুধবার অল্প সংখ্যক আম নামানো হয়েছে। এই আম পাকতে আরও সময় লাগবে। গোপালভোগ ও হিমাসাগরের মধ্যে দিয়ে আম বিক্রি জমে উঠবে।”

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার আম চাষী জহুরুল ইসলাম জানান, গতবছর গুটিজাতের এই আম ২০ থেকে ৩০ টাকা কেজিতে বিক্রি হয়েছিল। এবার এই আম বিক্রি হবে ৫০ টাকা কেজি দরে। যা মণের হিসাবে ২,০০০ টাকা।  

জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এবছর গোপালভোগ বা রানিপছন্দ আম পাড়া যাবে ২৫ মে থেকে। ৩০ মে পাড়া যাবে হিমসাগর বা ক্ষীরশাপাতি এবং লক্ষ্মণভোগ বা লখনা আম।

এছাড়া ১০ জুন থেকে ল্যাংড়া ও ব্যানানা আম, ১৫ জুন আম্রপালি ও ফজলি, ৫ জুলাই বারি-৪ আম, ১০ জুলাই আশ্বিনা, ১৫ জুলাই গৌড়মতি ও ২০ আগস্ট থেকে ইলামতি আম পাড়া যাবে। এছাড়া কাটিমন ও বারি-১১ আম সারা বছর সংগ্রহ করা যাবে।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপপরিচালক (উদ্যান) সাবিনা বেগম বলেন, “রাজশাহীতে গুটি জাতের আম পাড়া শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন জাতের আম পাড়া হবে। ২০২৩-২৪ অর্থবছরে রাজশাহী জেলায় আমের সম্ভাব্য উৎপাদন ২ লাখ ৬০ হাজার ৩১৫ টন। এ বছর আমের আবাদ হয়েছে ১৯,৬০২ হেক্টর জমিতে। যার গড় ফলন ধরা হয়েছে ১৩.২৮ টন।
,
রাজশাহী জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন, “বাজারে পরিপক্ক ও নিরাপদ আম নিশ্চিত করতে প্রতি বছরই তারিখ নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। এবারও কৃষক, কৃষি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ীসহ সংশ্লিষ্ট সবার মতামতের ভিত্তিতেই ‘ম্যাংগো ক্যালেন্ডার’ নির্ধারণ করা হয়েছে। এই সময়ের আগে যদি কোনো কৃষক বা ব্যবসায়ী পরিপক্ক আম নামান তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিষয়টি মনিটরিং করতে রাজশাহীর হাটগুলোতে সার্বক্ষণিক পুলিশ থাকবে।”

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, এ মৌসুমে রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ ও নাটোরে ৯৩,২৬৬ হেক্টর জমিতে আমের উৎপাদন হবে। উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে প্রায় সাড়ে ১২ লাখ টন। গত বছর রাজশাহীতে ১৯,৫৭৮ হেক্টর জমিতে ২ লাখ ৬০ হাজার ৬ মেট্রিক টন আম উৎপাদন হয়।

About

Popular Links