Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মেয়াদ শেষে অছাত্রদের নিয়ে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্তত ৩০ জন নেতা পড়াশোনার পাঠ চুকিয়েছেন

আপডেট : ১৬ মে ২০২৪, ০২:৫৮ পিএম

আংশিক কমিটি মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার প্রায় এক বছর পর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়েছে। 

এই কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ অন্তত ৩০ জন নেতা পড়াশোনার পাঠ চুকিয়েছেন। অনেক দেরিতে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা এবং অছাত্রদের পদ দেওয়ার কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নেতাকর্মীরা।

জানা গেছে, ২০২২ সালের ৩১ জুলাই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তৎকালীন সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের আংশিক কমিটি গঠন করা হয়।

এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের লোকপ্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী পোমেল বড়ুয়াকে সভাপতি ও একই শিক্ষাবর্ষের রসায়ন বিভাগের মাহফুজুর রহমান শামীমকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। তখন এই কমিটির মেয়াদ দেওয়া হয়েছিল এক বছর।

তবে কমিটি পূর্ণাঙ্গ হওয়ার আগে মেয়াদ শেষ হয়েছে। এরপর গেল বুধবার (১৫ মে) রাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সূত্রে জানা গেছে, এই কমিটির অন্তত ৩০ জন নেতার ছাত্রত্ব নেই। তবে তাদের রেখেই কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এজন্য অনেকে পদবঞ্চিত হয়েছেন।

বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, “সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের ছাত্রত্ব অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে। তারা এখন আর শিক্ষার্থী নন। তা ছাড়া পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে আরও অন্তত ৩০ জনের ছাত্রত্ব নেই। এমন অবস্থায় অছাত্রদের নিয়ে কমিটি গঠন সাধারণ শিক্ষার্থীসহ ছাত্রলীগের ত্যাগী নেতাদের মাঝে হতাশার সৃষ্টি করেছে। এতে সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে চরম স্থবিরতা দেখা দিতে পারে।”

পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা প্রসঙ্গে সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান শামীম বলেন, “কমিটির সবাইকে নিয়ে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সবসময় শিক্ষার্থী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নে পাশে থাকবে। স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে স্বপ্নের সারথি হিসেবে কাজ করবে বেরোবি ছাত্রলীগ।”

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়া বলেন, “দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ছিল কমিটি পূর্ণাঙ্গ হওয়া। সেটাও আমাদের জন্য অনেক চ্যালেঞ্জ ছিল। এটি যেন আমাদের জন্য একটি উৎসব হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

About

Popular Links