Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

অটোরিকশাচালকদের অবরোধ: ডেমরায় পুলিশের টিয়ারশেল নিক্ষেপ

  • ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় সড়ক অবরোধ করছেন অটোরিকশাচালকরা
  • ডেমরায় পুলিশের টিয়ারশেল নিক্ষেপ
আপডেট : ২০ মে ২০২৪, ০১:২৬ পিএম

ঢাকা মহানগরীতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধের প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের মতো আজও ঢাকার বিভিন্ন জায়গায় অবরোধ করছেন অটোরিকশাচালকরা। এতে বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল। দেখা দেয় তীব্র যানজট।

সোমবার (২০ মে) সকালে রামপুরা, বাড্ডা, শাহজাদপুর, মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ এবং ডেমরা এলাকায় মূল সড়ক অবরোধ করেন অটোরিকশাচালকরা।

এদিকে ডেমরা এলাকায় অটোরিকশাচালকদের একাধিকবার বুঝিয়ে রাস্তা থেকে সরানোর চেষ্টা করে পুলিশ। এতে ব্যর্থ হয়ে এক পর্যায়ে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এ সময় আন্দোলনকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এক পর্যায়ে তারা রাস্তা থেকে সরে যেতে বাধ্য হয়।

এ বিষয়ে ডেমরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুক মোল্লা বলেন, “ডেমরা এলাকায় বিক্ষিপ্তভাবে অটোরিকশাচালকরা রাস্তা অবরোধ করেছিলেন। তাদেরকে রাস্তা থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।”

অন্যদিকে, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা বন্ধের প্রতিবাদে সকালে রামপুরা এলাকায় সড়ক অবরোধ করেন অটোরিকশাচালকরা। এতে এই পথে যানজটের সৃষ্টি হয়। ৪৫ মিনিট পর চালকরা সড়ক ছেড়ে দিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এর আগে, একই দাবিতে রবিবার মিরপুরে সড়ক অবরোধ করেন অটোরিকশার চালকরা। এতে দিনভর মিরপুর-১০ গোল চত্বরের আশে পাশের এলাকায় দিনভর যান চলাচল ব্যাহত হয়।

উল্লেখ্য, দুর্ঘটনা কমিয়ে আনতে ঢাকার সড়কে ব্যাটারিচালিত রিকশা, ভ্যান এবং এ ধরনের তিন চাকার যান চলাচল বন্ধে বিজ্ঞপ্তি দেয় সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)।

১৮ মে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বিআরটিএ বলছে, “ব্যাটারি বা মোটরচালিত রিকশা বা ভ্যান বা এ জাতীয় থ্রি-হুইলার ঢাকা মহানগরীতে চলাচলের কারণে সড়ক নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে। ২০১৮ সালের সড়ক পরিবহন আইন অনুযায়ী ব্যাটারি/রিকশা বা ভ্যান বা এ ধরনের থ্রি-হুইলার এবং ফিটনেসের অনুপযোগী, রংচটা, জরাজীর্ণ ও লক্কড়ঝক্কড় মোটরযান চালানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এ অবস্থায় ঢাকা মহানগরীতে ব্যাটারি/রিকশা বা ভ্যান বা এ ধরনের থ্রি-হুইলার এবং ফিটনেসের অনুপযোগী, রংচটা, জরাজীর্ণ ও লক্কড়ঝক্কড় মোটরযান চালানো বন্ধ করার অনুরোধ করা যাচ্ছে।”

নির্দেশনা অমান্য করলে সংশ্লিষ্টের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে বিআরটিএ।

About

Popular Links