Monday, June 17, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ঢাকায় মঙ্গলবারও চলবে বৃষ্টি

টানা বৃষ্টিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পানি জমে মানুষের চলাচলে ভোগান্তি

আপডেট : ২৭ মে ২০২৪, ০৮:০৮ পিএম

বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানা প্রবল ঘূর্ণিঝড় রিমাল দুর্বল হয়ে পড়েছে। এটি এখন গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। রিমালের প্রভাবে সারাদেশেই ভারি বৃষ্টিপাত হচ্ছে।

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে রাজধানী ঢাকাতে সোমবার (২৭ মে) সকাল থেকে দমকা হাওয়ার সঙ্গে ভারি বৃষ্টি হচ্ছে। টানা বৃষ্টিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পানি জমে মানুষের চলাচলে ভোগান্তি হচ্ছে।

তবে এই আবহাওয়া আজ সারা রাত এবং আগামীকাল মঙ্গলবারও অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান বিকেলে সাংবাদিকদের বলেন, “ঘূর্ণিঝড়টি উপকূলে আঘাত হানার পর সেটি শক্তি হারিয়ে স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। সেটি এখন স্থল নিম্নচাপ হিসেবে যশোরে অবস্থান করছে। এর একটি অংশ ঢাকাসহ দেশের মধ্যাঞ্চলের ওপরে অবস্থান করছে। এর প্রভাবেই ঢাকায় দমকা হাওয়া ও ভারি বৃষ্টি হচ্ছে। আজ সকাল থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত ঢাকায় ১২৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এই মৌসুমে ঢাকায় এটাই সবচেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত।”

এছাড়া, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ঢাকায় ভোর থেকে দমকা হাওয়া বইছে। আগামীকাল পর্যন্ত থেমে থেমে ঝোড়ো বাতাস বয়ে যাবে। আবহাওয়াবিদ আব্দুর রহমান জানান, ঢাকায় সবচেয়ে বেশি বেগে দমকা হাওয়া বয়ে গেছে আজ সকাল ছয়টার দিকে, ঘণ্টায় ৫৯ কিলোমিটার।

এদিকে, আবহাওয়া অধিদপ্তরের ঘূর্ণিঝড় সতর্কীকরণ কেন্দ্রের উপপরিচালক মো. শামীম আহসান বিকেলে এক ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন, ঘূর্ণিঝড়টি স্থল নিম্নচাপ হিসেবে আগামীকালের পর সিলেটের ওপর দিয়ে দেশের বাইরে চলে যাবে। এটি ওপরে উঠে এবং এর প্রভাবে উজানে ভারতের আসাম ও মিজোরামে বৃষ্টি ঝরবে।

ঘূর্ণিঝড়টি গতকাল রাত আটটার দিকে মোংলার দক্ষিণ–পশ্চিমের পশ্চিমবঙ্গ উপকূল ও বাংলাদেশের খেপুপাড়ার মধ্যবর্তী এলাকা দিয়ে উপকূল অতিক্রম শুরু করে। এরপর দেশে সবচেয়ে বেশি গতিতে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে গেছে দিবাগত রাত দেড়টা থেকে দুইটা পর্যন্ত পটুয়াখালীর খেপুপাড়ায়। এ সময় বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১১১ কিলোমিটার।

এই ঝড়ের প্রভাবে সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে। বিকেল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে চট্টগ্রামে ১৩৮ মিলিমিটার।

About

Popular Links