Saturday, June 22, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

লাগেজে মিলল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের খণ্ডিত মরদেহ

লাগেজে মরদেহের সঙ্গে কাঁথা-বালিশও পেয়েছে পুলিশ

আপডেট : ০৩ জুন ২০২৪, ১১:২৯ এএম

ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় একটি লাগেজ থেকে মানবদেহের তিনটি খণ্ড ও পাশ থেকে বিচ্ছিন্ন মাথা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রবিবার (২ জুন) দুপুরে উপজেলার ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মনতলা সেতুর নিচে সুতিয়া নদীতে পড়ে থাকা লাগেজ থেকে মরদেহের অংশগুলো উদ্ধার করা হয়।

মরদেহটি ওমর ফারুক সৌরভ নামে এক তরুণের বলে জানিয়েছে পুলিশ। তার বাড়ি ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায়। সৌরভ রাজধানী ঢাকার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, রবিবার সকালে স্থানীয় কয়েকজন গরু চরাতে এসে ব্রিজের নিচে সুতিয়া খালে একটি লাগেজ ও পাশে কাগজে মোড়ানো রক্তাক্ত মাথা দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাগেজ থেকে শরীরের তিনটি খণ্ড ও পাশ থেকে বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধার করে।

ময়মনসিংহ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহিনুল ইসলাম ফকির সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, “ঘটনাটিকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড মনে হচ্ছে। হত্যার পর লাগেজে মাথা ছাড়া মরদেহ ভরে ব্রিজের ওপর থেকে পানিতে এবং পলিথিনে মোড়ানো মাথা পাটক্ষেতের কাছে ফেলে যায় ঘাতকরা। লাগেজে তার শরীরের খণ্ডিত অংশের সঙ্গে কাঁথা-বালিশও পাওয়া গেছে। মরদেহের অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে মেশিন দিয়ে গলা ও পা কাটা হয়েছে। নিহতের পরিচয় জানার পর অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।”

About

Popular Links