Saturday, May 18, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রধান শিক্ষক-সভাপতি দ্বন্দ্বে পরীক্ষায় বিড়ম্বনা, শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

এসএসসি পরীক্ষার্থীরা ব্যবহারিক পরীক্ষার হলে বসতে না পেরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে

আপডেট : ০৪ মার্চ ২০১৯, ০৯:৩৬ পিএম

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে স্কুলের কার্যকরী কমিটির সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের দ্বন্দ্বের জেরে উপজেলার বড়শীলা উচ্চবিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থীরা ব্যবহারিক পরীক্ষার হলে বসতে না পেরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে। সোমবার উপজেলার সূতী ভিএম পাইলট মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম গত বছর স্কুল গেটে ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হন। ওই ঘটনার জন্য তিনি স্কুলের সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হালিমুজ্জামান তালুকদারকে দায়ী করেন। এ ঘটনায় করা মামলায় হালিমুজ্জামান তালুকদারের ভাই হারুন অর রশীদ তালুকদার গ্রেফতার হন। 

বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের মুখোমুখি অবস্থানের কারণে গত সাত মাস ধরে ওই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভা হচ্ছে না। ফলে স্কুলের অনেক জরুরি বিষয় আটকে আছে।

বড়শীলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জানান, বিদ্যালয়ের সভাপতি হালিমুজ্জামান তালুকদার তাকে পাশ কাটিয়ে স্কুলের সহকারি প্রধান শিক্ষক ফখরুদ্দীন শাহীনকে অবৈধভাবে দায়িত্ব দিয়ে স্কুল চালানোর চেষ্টা করছেন। স্কুলের কোনও কাজেই তাকে সম্পৃক্ত হতে দেওয়া হচ্ছে না। সভাপতি যৌথ চেকে সই না করায় ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন সম্ভব না হওয়ায় চলতি এসএসসি পরীক্ষার প্রায় দুই শতাধিক পরীক্ষার্থীর কেন্দ্র ফি পরিশোধ করা যায়নি। 

এদিকে, কেন্দ্র ফি পরিশোধ না হওয়ায় ব্যবহারিক পরীক্ষায় বসতে পারেননি এ বছর ওই বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীরা। প্রতিবাদে সোমবার ক্ষুব্ধ পরীক্ষার্থীরা পৌর এলাকার প্রধান সড়ক অবরোধ করে। পরে উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে তারা অবরোধ তুলে নিয়ে পরীক্ষায় অংশ নেয় ।

স্কুলের সভাপতি হালিমুজ্জামান তালুকদার জানান, প্রধান শিক্ষক সব সময় ম্যানেজিং কমিটিকে পাশ কাটিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনার চেষ্টা করে আসছেন। চেক সইয়ের বিষয়ে তিনি বলেন, কোনও চেকেই সই দেয়া বাকি নেই। প্রধান শিক্ষক ইচ্ছাকৃতভাবে কেন্দ্র ফি পরিশোধ না করে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পরিকল্পিতভাবে রাস্তায় নামিয়েছেন।

About

Popular Links