• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৬ রাত

কথোপকথনে অলগা গিরজাসনোভা: জার্মানিতে বর্ণবাদের মুখোশ উন্মোচন

  • প্রকাশিত ০৬:৫৪ সন্ধ্যা নভেম্বর ৯, ২০১৮
অলগা গিরজাসনোভা
অলগা গিরজাসনোভা। ছবি: মাহমুদ হোসেন অপু

"পশ্চিমা সভ্যতা মানবাধিকার, বাক স্বাধীনতা ইত্যাদি নিয়ে অন্যদের জ্ঞান দিতে বড্ড ভালবাসে"

আপনি খুব সাহসী কণ্ঠেই বলেছিলেন যে, "জার্মান সমাজ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ থেকে কিছুই শেখেনি"। এর জন্য জার্মানিতে আপনার জন্য জীবন কি কঠিন হয়েছিল?

আমি মনে করি আমরা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ থেকে কিছু জিনিস শিখেছি বটে কিন্তু আমরা যেভাবে প্রচার করছি, ঠিক ততটা নয়। জার্মানিতে একটা কথা আছে, "আর কখনও নয়"। পশ্চিমা সভ্যতা মানবাধিকার, বাক স্বাধীনতা ইত্যাদি নিয়ে অন্যদের জ্ঞান দিতে বড্ড ভালবাসে। কিন্তু এই মানবাধিকারের ইউরোপীয় ইউনিয়নের সীমান্তেই মৃত্যু হয়। আমরা অভিবাসীদের কোন অধিকার দিতে পারি না; আমরা তাদের বের করে দেই। আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার ৬৯তম জন্মদিনে রসিকতা করে বলেছিলেন,  ৬৯জন আফগান নাগরিককে তার জন্মদিনে বহিষ্কার করা হয়েছে। অবাক হতে হয়, তিনি প্রশাসনের শীর্ষে থাকা মানুষদের একজন! জার্মানির সাম্প্রদায়িক অপরাধের সাথে শ্বেতদের বিশেষাধিকারের সম্পর্কটা প্রবল। 

যদিও আমি জার্মানিতে অভিবাসী হিসাবে এসেছি (এবং তা একদমই সহজ ছিল না), আমার কাছে শ্বেত হিসেবে একটা বিশেষাধিকার ছিল এবং আমি ঠিক জানি রাস্তায় আমার সাথে কিরূপ আচরণ করা হবে এবং কিরূপ আচরণ করা হবে একজন হিজাবির সাথে। এই দৃশ্যমান বৈসাদৃশ্যতা একটি বড় মাপের পার্থক্য তৈরি করে। আমি বহু বছর ধরে জার্মানিতে এই প্রশ্নটি শুনেছি- "আপনি কোথা থেকে এসেছেন?" যার অর্থ, “ আপনি কোন জাতি?”। যদি এটি মানুষের আপনাকে করা প্রথম প্রশ্ন হয়ে থাকে তবে তা প্রমান করে, আপনি এই জায়গার কেউ নন।

আপনার লেখা এবং আপনার ঐতিহ্যের প্রতি আপনার দৃষ্টিভঙ্গির সাথে ফিলিপ রথজনাথন সাফরান কিম্বা আর্ট স্পিগেলম্যানের মতো ইহুদি পরিবারে বড় হওয়া ব্রিটিশ এবং মার্কিনী লেখকদের মিল পাওয়া যায়। আপনি কি নিজেকে অন্য কোন জাতি, ধর্ম বা বাস্তবতার পটভূমিতে কোন চরিত্র নিয়ে পরীক্ষামূলক কাজ করতে দেখতে চান? 

আমি একটি বই লিখেছিলাম যার পটভূমি ছিল সিরিয়া, যার প্রায় সবকটা চরিত্রই সিরিয়ান। আমার দ্বিতীয় বইতে, নায়িকা জর্জিয়ার। তবে একটি কথা থেকে যায়, এসব অন্যের গল্পের কতটুক আপনি সত্যিই বলা উচিৎ? কিম্বা আদৌ আপনি কি এসব নিয়ে কথা বলার কেউ? সিরিয়া নিয়ে আমার এই বইটি এখনও একটি খুব ইউরোপীয় বই, এটি কোনভাবেই নিজেকে একটি সিরিয়ান বই হিসেবে জাহিরও করে না।

ঢাকা লিট ফেস্ট ২০১৮ নিয়ে আপনার ভাবনা কি? আপনার কি মনে হয় এই ধরণের উৎসব বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তরে থাকা লেখকদের মধ্যে একটি যোগাযোগ তৈরি করতে সহায়তা করে? 

এই সাহিত্য উৎসবটা খুবই দারুণ-আশ্চর্যজনক এক জায়গা, একটি মনোজ্ঞ আয়োজন, আর সেই সাথে আছেন মন্ত্রমুগ্ধকারী বক্তারা। আমার মনে হয় এটি নিজেদেরকে শিক্ষিত করার জন্য একটি দুর্দান্ত জায়গা, শুধু এখানে আলোচনা শুনতে আসা দর্শকদের জন্যই নয়,  আলোচনা সভায় থাকা আমাদের সবার জন্যই এর থেকে শেখার অনেক কিছুই আছে। আমার জন্য এই উৎসব বেশ উত্তেজনাপূর্ণ, বিশেষ করে যেহেতু আমি বাংলাদেশ এবং বাংলা সাহিত্য সম্পর্কে অজ্ঞ ছিলাম, এবং মাত্র এই একদিনেই আমি যেন অনেক কিছুই শিখে ফেলেছি। এবং হ্যাঁ, অবশই, আমি মনে করি এই ধরণের আসর লেখকদের সাথে যোগাযোগ তৈরি করার সর্বোত্তম উপায়। বেশিরভাগ লেখকদেরই আমি চিনি এবং বিভিন্ন উৎসবে দেখাও করি।

বাংলাদেশের নতুন লেখকদের জন্য আপনার কোন পরামর্শ আছে? 

লেখা চালিয়ে যাও। সবকিছুই নির্ভর করে চেষ্টার ওপর, এটাই আমার পরামর্শ। এতে কাজ হতে পারে কিম্বা, নাও হতে পারে। অন্য একটি সম্ভাব্য কর্মজীবনের ধারণা থাকাও খারাপ নয়, অর্থ যদি একটি সমস্যা হয়ে থাকে, তবে এতে কোন ক্ষতি নেই। যদি তা কাজ না করে তাহলে এর জন্য সবকিছু শেষ হয়ে যাবে না, তবে আপনাকে অন্তত চেষ্টা করতে হবে।

50
50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail