• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৪০ রাত

হাওরাঞ্চলে কৃষি বীমার গুরুত্ব বিষয়ে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের কর্মশালা

  • প্রকাশিত ০৭:২৫ রাত মার্চ ১৬, ২০২০
গ্রিন ডেল্টা
ছবি: সৌজন্য

‘সারা দেশে কৃষি বীমার সম্প্রসারণই দীর্ঘমেয়াদী এসডিজি লক্ষ্য অর্জনে দেশকে সহায়তা করবে’

বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের তত্ত্বাবধানে হাওরাঞ্চলের জন্য সূচক ভিত্তিক কৃষি বীমার গুরুত্ব নিয়ে সম্প্রতি সিআইআরডিএপি (CIRDAP) কেন্দ্রে কর্মশালার আয়োজন করেছে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স।    

কর্মশালাটির উদ্বোধন করেন প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারজানা চৌধুরী। উদ্বোধনী বক্তব্যে বন্যায় ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলের মানুষের দুর্দশা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। এছাড়া, হাওর অঞ্চলে বসবাসরত কৃষকদের বীমার আওতা বাড়িয়ে তোলার পাশাপাশি কীভাবে জাতীয় অর্থনীতিতে গ্রামীণ খাতের অবদান নিশ্চিত ও জিডিপিতে কৃষির অবদান আরও বাড়ানো যায় সে বিষয়েও আলোকপাত করেন তিনি।

তিনি বলেন, “সারা দেশে কৃষি বীমার সম্প্রসারণই দীর্ঘমেয়াদী এসডিজি লক্ষ্য অর্জনে দেশকে সহায়তা করবে।”

উদ্বোধনী বক্তব্যের পরে অর্থ মন্ত্রণালয় এবং এর আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ সারা বাংলাদেশ জুড়ে শস্য বীমা প্রতিষ্ঠায় তাদের আগ্রহ প্রকাশ করেছে। অর্থ মন্ত্রণালয় এবং এর আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের নির্দেশনা মতে বাংলাদেশের উত্তর-পূর্ব হাওর অঞ্চলে এক বছরের দীর্ঘ পাইলট প্রকল্পের মাধ্যমে এই উদ্যোগ শুরু হবে। 

অনুষ্ঠানে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, বলেন, “কৃষকদের রক্ষার জন্য সরকার এবং অন্যান্য সংস্থাগুলোর এগিয়ে আসা এবং বীমা আকারে সহায়তা দেওয়া উচিত।”