• বুধবার, অক্টোবর ২১, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২০ রাত

রাজশাহীর বাজারে অল্প আম

  • প্রকাশিত ১০:৩৮ রাত মে ১৫, ২০২০
রাজশাহী
আমের মৌসুমের প্রথম দিনে অল্প আম বাজারে আসে। ঢাকা ট্রিবিউন

সকল গুটি জাতের আম এক সপ্তাহের মধ্যে বাজারে ভালোভাবে আসতে শুরু করবে। আর আবহাওয়া ভালো থাকলে বা বেশি গরম পড়লে সকল আম একটু আগে পাকার সম্ভাবনা রয়েছে

প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময়ের নির্ধারিত দিন (১৫ মে) রাজশাহীর বানেশ্বর বাজারে গুটি জাতের অল্প আম উঠেছে। তবে করোনাভাইরাস ও অপরিপক্কের কারণে নগরীসহ রাজশাহীর অন্য বাজারগুলো এখনও কোনো আম ওঠাননি ব্যবসায়ীরা।

রাজশাহী নগরীর শালবাগান এলাকার ফল ব্যবসায়ী মোশরারফ হোসেন জানান, আমাদের এই বাজারে কোনো আম উঠানো হয়নি। তবে ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ১০০ মণ আমের অর্ডার আছে। তবে বাগানে গিয়ে দেখি এখনও আম পরিপক্ক হয়নি। ঈদের পর আমাদের আমের বাজার জমজমাট হবে। আর গুটি জাতের আম আমার বাগানে ছিল না। তবে আমাদেরকে যেসব চাষিরা আম সরবরাহ করে থাকেন, তাদের একজন বলেছে বৈশাখী আম কয়েকটা পরিপক্ক হয়েছে। নিয়ে আসবো কিনা? তাকে বলা হয়েছে ঈদের পর আনতে।

তিনি আরও বলেন, প্রশাসনের সময়সীমার মধ্যে এবার আম পাড়া যাবে না। কারণ আম পরিপক্ক হতে সময় লাগবে। আজকে (শুক্রবার, ১৫ মে) একটি বাগানে ৩০ মণ গোপাল ভোগ আছে। চার-পাঁচবার আমবাগানে ঘুরে পুরোপুরি পরিপক্ক হওয়া দেখতে পেলাম না। আরও কয়েক দিন সময় লাগবে।

রাজশাহীর ফল গবেষণা কেন্দ্রের তথ্য মতে, জেলায় এবার আম বাগান রয়েছে ১৭ হাজার ৬৮৬ হেক্টর জমিতে। আর আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২ লাখ ১০ হাজার মেট্রিকটন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সকল গুটি জাতের আম এক সপ্তাহের মধ্যে বাজারে ভালোভাবে আসতে শুরু করবে। আর আবহাওয়া ভালো থাকলে বা বেশি গরম পড়লে সকল আম একটু আগে পাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

জেলার সবচেয়ে বড় আমের হাট বানেশ্বরে শুক্রবার (১৫ মে) মাত্র দুই ভ্যান গাড়িতে গুটি জাতের আম নিয়ে আসে চাষিরা। সাইফুল ইসলাম নামের এক চাষি জানান, এগুলো গুটি জাতের আম এখন পরিপক্ক হয়েছে, এক হাজার থেকে ১২০০ টাকায় বিক্রি করবো।

আল-আমিন নামের আরেক চাষি জানান, বাজারে এখনও ব্যাপারী আসেনি। তাই আড়তদারকে এক হাজার টাকা মণ দরে বিক্রি করে চলে যাচ্ছি। ক্রেতাও নেই।

রাজশাহীর ফল গবেষণা কেন্দ্রর প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড.আলিম উদ্দিন জানান, ১৫ মে থেকেই প্রশাসনের নির্ধারিত সময় এখন কিছু গুটি জাতের আম পাকতে শুরু করেছে। এছাড়া পর্যায়ক্রামে সকল আম পাকতে শুরু করবে। জেলার সকল চাষিদের স্বার্থের কথা চিন্তা করে প্রশাসন আলোচনার মাধ্যমে সময়সীমা নির্ধারণ করেছে।

আম চাষি রফিকুল ইসলাম জানায়, গত বছর এই সময়ে আমের ব্যাপারীরা (ব্যবসায়ী) বাগানে বাগানে আম কেনার জন্য ঘুরেছেন। এবছর আম কেনার মতো কোনো ব্যাপারী নেই। ফলে আম বিক্রি নিয়ে অনেকটাই শঙ্কায় রয়েছি। যারা আমের বাগান কিনেছেন তারা বেশি বিপাকে রয়েছেন।

চাষিদের আম নিয়ে শঙ্কার বিষয়ে রাজশাহী জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক শামসুল হক বলেন, “কৃষি পণ্য লকডাউনের বাইরে। তাই বাজারজাত করতে সমস্যা হবে না। গাছে যখন আম পাকবে তখনই চাষিরা বাজারে নিতে পারবেন।”

রাজশাহীর সবচেয়ে বড় আমের হাটের (বানেশ্বর হাট) ইজারাদার ওসমান আলী জানান, বাজারে গুটি জাতের পাকা আম বিক্রি হয়নি। তবে সকালের দিকে বৃহস্পতিবার রাতের ঝড়ে পড়া আম বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতা নেই।

গাছ থেকে রাজশাহীতে আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করে দিয়েছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন। অসময়ে আম সংগ্রহ বন্ধ রাখতে রাজশাহী জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ১৫ মে এর আগে কোনও আম পাড়া যাবে না। ১৫ মে থেকে সকল প্রকার গুটি আম পাড়তে পারবেন চাষিরা। এছাড়াও চাষিরা গোপালভোগ আম নামাতে পারবেন ২০ মে থেকে। এছাড়া রানীপছন্দ ও লক্ষণভোগ বা লখনা ২৫ মে, হিমসাগর বা খিরসাপাত ২৮ মে, ল্যাংড়া ৬ জুন, আম্রপালি ১৫ জুন এবং ফজলি ১৫ জুন থেকে নামানো যাবে। সবার শেষে ১০ জুলাই থেকে নামবে আশ্বিনা এবং বারী আম-৪।

রাজশাহী অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরীফুল হক বলেন, “অপরিপক্ব আম বাজারজাত ঠেকাতে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন। সুষ্ঠুভাবে মনিটরিং করে নির্দিষ্ট সময়েই আম নামানো হবে। এর আগে অন্য জাতের আম বাজারে আনা যাবে না।”

52
50
blogger sharing button blogger
buffer sharing button buffer
diaspora sharing button diaspora
digg sharing button digg
douban sharing button douban
email sharing button email
evernote sharing button evernote
flipboard sharing button flipboard
pocket sharing button getpocket
github sharing button github
gmail sharing button gmail
googlebookmarks sharing button googlebookmarks
hackernews sharing button hackernews
instapaper sharing button instapaper
line sharing button line
linkedin sharing button linkedin
livejournal sharing button livejournal
mailru sharing button mailru
medium sharing button medium
meneame sharing button meneame
messenger sharing button messenger
odnoklassniki sharing button odnoklassniki
pinterest sharing button pinterest
print sharing button print
qzone sharing button qzone
reddit sharing button reddit
refind sharing button refind
renren sharing button renren
skype sharing button skype
snapchat sharing button snapchat
surfingbird sharing button surfingbird
telegram sharing button telegram
tumblr sharing button tumblr
twitter sharing button twitter
vk sharing button vk
wechat sharing button wechat
weibo sharing button weibo
whatsapp sharing button whatsapp
wordpress sharing button wordpress
xing sharing button xing
yahoomail sharing button yahoomail