শিগগিরই ভারত থেকে জ্বালানি পণ্য আমদানি শুরু

বিপিসি সম্প্রতি পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম জ্বালানি আমদানির জন্য ভারতের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন লিমিটেডর সঙ্গে চুক্তি সই করেছে

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে বিশ্বব্যাপী জ্বালানি পণ্যের বাজারে অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। এই সংকট ইউরোপজুড়েই। এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ ভারত থেকে জ্বালানি পণ্য আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শিগগিরই জ্বালানি পণ্য আমদানি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন (বিপিসি) সম্প্রতি পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম জ্বালানি আমদানির জন্য ভারতের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন “ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন লিমিটেড”র (আইওসিএল) সঙ্গে চুক্তি সই করেছে। আইওসিএল থেকে ডিজেল, জেট ফুয়েল, পেট্রল এবং সালফার কেনা হবে।

রাশিয়ার ওপর পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা থাকা স্বত্ত্বেও ভারত দেশটি থেকে কম দামে জ্বালানি পণ্য কিনছে। বাংলাদেশ ভারতের মাধ্যমে এখন কম দামে রাশিয়ার জ্বালানি পণ্য পেতে পারে।

এর আগে আইওসিএল থেকে বাংলাদেশ ২০২০ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রায় ৪ লাখ ৩০ হাজার মেট্রিক টন সালফার (০.০০৫%), ৫০ হাজার মেট্রিক টন জেট ফুয়েল এবং ৩০ হাজার মেট্রিক টন পেট্রল আমদানি করেছিল। তারও আগে অর্থবছর ২০০৫-০৬ এ বাংলাদেশ এই সংস্থাটি থেকে ৪ লাখ মেট্রিক টন পেট্রল কিনেছিল।

এছাড়া  “ভারত পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেডের” মালিকানাধীন আসামের নুমালিগড় শোধনাগার থেকে বাংলাদেশ ২০১৭ সাল থেকে প্রায় ৮ লাখ মেট্রিক টন সালফার (০.০০৫%) আমদানি করেছে।

বিস্তারিত পড়ুন- Indian oil imports to begin soon

ADVERTISEMENT

×