Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

আমদানির খবরে হিলিতে দাম কমে কাঁচা মরিচ এখন ৪০০ টাকা কেজি

আমদানিকারকরা বলছেন, ভারতে পাইকারিতে প্রতিকেজি কাঁচা মরিচ কিনতে হচ্ছে ১৪০ রুপি। পরিবহন ও আমদানি খরচসহ ২৪০ টাকার মতো পড়বে

আপডেট : ০২ জুলাই ২০২৩, ০২:০৪ পিএম

কৃষিনির্ভর বাংলাদেশে এখন প্রায়ই কোনো না কোনো কৃষিপণ্য নিয়ে তৈরি হচ্ছে সংকট। সংকট সমাধানে করা হচ্ছে আমদানি। ঈদের আগে থেকে দাম বাড়তে শুরু করে কাঁচা মরিচের। সেটি এখন কোথাও কোথাও হাজার টাকার বেশি কেজিদরে বিক্রি হচ্ছে। পণ্যটির দাম নিয়ন্ত্রণে আনতে আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সরকারের সিদ্ধান্তের পরই দেশের বাজারগুলোতে কেজিপ্রতি ১২০ থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত কমেছে কাঁচা মরিচের দাম। দিনাজপুরের হিলিতে কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩৮০ থেকে ৪০০ টাকায়। একদিনের ব্যবধানে কেজিতে ১২০ টাকা কমেছে। 

ধারণা করা হচ্ছে, আগামীকাল থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পণ্যটি আমদানি হতে পারে এমন খবরে দাম কমেছে। তবে আমদানি শুরু হলে দাম আরও কমে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরবে বলে আশা ক্রেতা ও বিক্রেতাদের।

হিলি বাজারে কাঁচা মরিচ কিনতে আসা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, “কাঁচা মরিচের দামের যে ঊর্ধ্বমুখী তাতে গত কয়েকদিন ভয়েই কিনিনি। আজ ৪০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।”

অপর ক্রেতা নারগিস সুলতানা বলেন, “কাঁচা মরিচের দাম অন্য সব পণ্যকে ছাড়িয়ে গেছে। দাম বাড়তে বাড়তে ৫০০ টাকায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে আজকে কিছুটা কমেছে।”

হিলি বাজারের কাঁচা মরিচ বিক্রেতা বিপ্লব শেখ জানান, “বিভিন্ন কারণে কাঁচা মরিচের উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে। এদিকে আমদানি ও সরবরাহও বন্ধ। এতে পণ্যটির দাম বেড়েছে। তবে গত কালের চেয়ে আজ মোকামে কাঁচামরিচের দাম কিছুটা কম। দেশীয় কাঁচা মরিচের পাশাপাশি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি শুরু হলে দাম আরও কমবে।”

হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারক আনোয়ার হোসেন বলেন, “সরবরাহ কমে দেশের বাজারে কাঁচা মরিচের দাম অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে। দাম নিয়ন্ত্রণে ও সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে ২৫ জুন আমদানির অনুমতি দেয় সরকার। এ পর্যন্ত হিলি স্থলবন্দরের সাত আমদানিকারক তিন হাজার টন কাঁচা মরিচ আমদানির অনুমতি পেয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, “সোমবার থেকে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পণ্য আসা-যাওয়া শুরু হবে। তবে ঈদের আগে বন্দর দিয়ে পাঁচ ট্রাকে ২৭ টন কাঁচা মরিচ আমদানি হয়। যা আমরা বন্দরে ২০০ থেকে ২২০ টাকা দরে বিক্রি করেছিলাম। ভারতেই বর্তমানে পাইকারিতে কাঁচা মরিচ ১৪০ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে। এতে পরিবহন ও আমদানি খরচ মিলে ২৪০ টাকার মতো পড়বে। যার কারণে ২৫০ টাকার নিচে বিক্রি সম্ভব নয়।”

About

Popular Links