Monday, May 20, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মহামারিতে আরও সম্পদের মালিক শীর্ষ ধনীরা

এই সময়ের মধ্যে বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী ব্যক্তির সম্পদ বেড়েছে ১০০ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি

আপডেট : ০৯ মার্চ ২০২২, ০৩:২৫ পিএম

কোভিড মহামারির মধ্যে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তিদের বৈশ্বিক সম্পদের ভাগ রেকর্ড হারে বেড়েছে বলে বৈষম্য সংক্রান্ত এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে।

ওয়ার্ল্ড ইনইকুয়ালিটি রিপোর্ট অনুসারে, ১৯৯৫ সাল থেকে বিশ্বের শীর্ষ ধনীদের অর্থের পরিমাণ ১% থেকে বেড়ে ৩% হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২০ সালে করোনাভাইরাস মহামারি চলাকালে বিশ্বব্যাপী শীর্ষ ধনীদের সম্পদের অংশ রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে।

সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের ১% ১৯৯৫ সাল থেকে বিশ্বের সঞ্চিত সমস্ত অতিরিক্ত সম্পদের এক তৃতীয়াংশেরও বেশি দখল করেছে। যেখানে শীর্ষ ধনীদের বাকি ৫০%-এর দখলে রয়েছে মাত্র ২% সম্পদ।

প্যারিস স্কুল অব ইকোনমিক্সের ওয়ার্ল্ড ইনইকুয়ালিটি ল্যাবের সহ-পরিচালক লুকাস চ্যান্সেল এএফপি-কে বলেছেন, “করোনাভাইরাসের ১৮ মাসেরও বেশি সময় পর, বিশ্ব আরও বেশি বৈষম্যের মুখোমুখি হয়েছে।”

“যদিও শীর্ষ ধনীদের সম্পদ ৪ ট্রিলিয়ন ডলারেরও বেশি বেড়েছে। অন্যদিকে, আরও ১০ কোটি মানুষ চরম দারিদ্র‍্যের সীমায় পৌঁছে গেছে,” চ্যান্সেল বলেন।

ফোর্বস ম্যাগাজিনের একটি রিয়েল-টাইম র‍্যাঙ্কিং অনুযায়ী, বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনী ব্যক্তিদের প্রত্যেকের সম্পদ ১০০ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। যার মধ্যে টেসলা’র প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক ২৬৪.৫ বিলিয়ন ডলার নিয়ে ধনীদের মধ্যে শীর্ষে রয়েছেন।

২২৮ পৃষ্ঠার ওই প্রতিবেদনে ফরাসি অর্থনীতিবিদ টমাস পিকেটি বলেছেন, “কর ফাঁকি রোধ করার ব্যবস্থাসহ সম্পদ পুনঃবন্টন করার জন্য ‘বিশ্বের বহু কোটিপতির ওপর পরিমিত সম্পদ কর’ জারি করা উচিত।”

সম্পদ কেন্দ্রীকরণের বিশাল পরিমাণের পরিপ্রেক্ষিতে, পরিমিত কর সরকারের জন্যও উল্লেখযোগ্য রাজস্ব তৈরি করতে পারবে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়।

About

Popular Links