Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রথম বাংলাদেশি নৃত্যশিল্পী হিসেবে ইউনেস্কোতে বক্তব্য রাখলেন পূজা

২০১৯ সালরে ৩১ জুলাই ইন্টারন্যাশনাল ড্যান্স কাউন্সিল ইউনেস্কোর সদস্যপদ লাভ করেন পূজা সেনগুপ্ত ও তার ‌‌`তুরঙ্গমী স্কুল অব ড্যান্স'

আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৩৮ পিএম

জাতিসংঘের শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কোর সদর দপ্তরে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ইন্টারন্যাশনাল ড্যান্স কাউন্সিল ইউনেস্কোর ২৩তম দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভায় অংশগ্রহণ শেষে দেশে ফিরেছেন ড্যান্স থিয়েটার “তুরঙ্গমী”র পরিচালক নৃত্যশিল্পী পূজা সেনগুপ্ত।

ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অবস্থিত ইউনেস্কো সদর দপ্তরে গত ৪ ডিসেম্বর দেওয়া বক্তব্যে বাংলাদেশের সংস্কৃতি, নৃত্যশিল্প ও শিল্পীদের বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

এই প্রথম কোনো বাংলাদেশি নৃত্যশিল্পী হিসেবে তিনিই ইউনেস্কো সদর দপ্তরে বক্তব্য রাখার গৌরব অর্জন করলেন।

তিন মিনিটের সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে পূজা বাংলাদেশের নাচে পেশাদারিত্ব প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে তুরঙ্গমীর কার্যক্রম, বাংলাদেশের নাচ ও সংস্কৃতি এবং সামগ্রিকভাবে দেশের নৃত্যশিল্পীদের কথা তুলে ধরেন। পাশাপাশি বাংলাদেশে আন্তর্জাতিকমানের নৃত্য প্রশিক্ষণ, গবেষণা ও কর্মশালা পরিচালনার জন্য বিশ্বের স্বনামধন্য নৃত্য প্রশিক্ষকদের ঢাকায় আমন্ত্রণ জানান। বাংলাদেশের নৃত্যশিল্পীদের নিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সুযোগ দেওয়ার জন্য বড় প্রযোজনা ও নির্মাতা সংস্থাগুলোকে দেশের নাচের অঙ্গনে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। 

এসব কার্যক্রমে তার প্রতিষ্ঠান “তুরঙ্গমী” সার্বিক সহায়তা করবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ৩১ জানুয়ারি বাংলাদেশের নাচে পেশাদারিত্ব প্রতিষ্ঠা ও সমসাময়িক নিজস্ব নৃত্যধারা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করে “তুরঙ্গমী রেপারটরি ড্যান্স থিয়েটার”। সাফল্যের সঙ্গে চার বছর অতিক্রমের পর ২০১৮ সাল থেকে শুরু হয় “তুরঙ্গমী স্কুল অব ড্যান্স”-এর র্কাযক্রম। প্রথাগত নাচের পাশাপাশি বিষয়ভিত্তিক গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে এই স্কুলটি। 

কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৯ সালরে ৩১ জুলাই ইন্টারন্যাশনাল ড্যান্স কাউন্সিল ইউনেস্কোর সদস্যপদ লাভ করেন পূজা সেনগুপ্ত ও তার “তুরঙ্গমী স্কুল অব ড্যান্স”।

ইউনেস্কোর অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ শেষে গত ৬ ডিসেম্বর ঢাকায় ফেরেন পূজা।

About

Popular Links