Tuesday, May 28, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

প্রথম সপ্তাহেই শত কোটির মাইলফলক ছাড়ালো 'দাবাং থ্রি'!

যদিও ষষ্ঠদিনের তুলনায় সপ্তমদিনে এসে ছবির আয় প্রায় অর্ধেক কমে গেছে। আর তাই বক্সঅফিস বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, আর খুব বেশি দৌড়াতে পারবে না দাবাং-থ্রি

আপডেট : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০২:৫৪ পিএম

সালমান খানের বহুলচর্চিত সিনেমা দাবাং-থ্রি বড় পর্দায় একসপ্তাহ কাটিয়ে ফেলেছে। এরইমধ্যে ছবিটি ১০০ কোটি পার করেছে, তবে চলচ্চিত্র বোদ্ধাদের প্রত্যাশা পুরোপুরি পূরণ হয়নি। 

আগের দিনের চেয়ে সপ্তমদিনে এসে ছবির আয় প্রায় অর্ধেক কমে গেছে। আর তাই বক্সঅফিস বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, আর খুব বেশি দৌড়াতে পারবে না দাবাং-থ্রি।

বক্স অফিস ইন্ডিয়ার বরাতে বিজনেস টুডের খবরে বলা হয়েছে, সপ্তমদিনে ছবিটি আয় করেছে ৬ থেকে ৭ কোটি রুপি। অথচ তার আগেরদিন অর্থাৎ, ক্রিসমাসের ছুটির দিনে এটি আয় করেছিলো ১৫.৭০ কোটি রুপি।

একনজরে ওপেনিং সপ্তাহে দাবাং থ্রির বক্স অফিস কালেকশন

প্রথমদিন : ২৪.৫০ কোটি রুপি

দ্বিতীয়দিন : ২৪.৭৫ কোটি রুপি

তৃতীয়দিন : ৩১.৯০ কোটি রুপি

চতুর্থদিন : ১০.৭০ কোটি রুপি

পঞ্চমদিন : ১২ কোটি রুপি

ষষ্ঠদিন : ১৫.৭০ কোটি রুপি

সপ্তমদিন : ৬-৭ কোটি রুপি

সালমান খানের প্রযোজনা সংস্থার অফিশিয়াল টুইটার পেজ থেকে জানানো হয়েছে, সালমানের ১৫তম সিনেমা হিসেবে শতকোটির মাইলফলক স্পর্শ করল দাবাং থ্রি।

বলিবাবল জানিয়েছে, মুক্তির দিনই ছবিটি আয় করে ২৪ কোটি রুপি। তৃতীয়দিনে ছবিটির মোট আয় ৭৫ কোটি রুপি। চতুর্থ ও পঞ্চমদিনে ভালো ব্যবসা করে ছবিটি। বড়দিনের ছুটিতেও ভারতের বিভিন্ন সিনেমাহলে দর্শকের লাইন দেখা গেছে।

সপ্তাহজুড়ে সবমিলিয়ে ১২৬ কোটি রুপি আয় হয়েছে দাবাং থ্রি’র। বলিউড হাঙ্গামা বলছে, দাবাং সিরিজের প্রথম ছবিটি সবমিলিয়ে আয় করেছিল ১৩৮.৮৮ কোটি রুপি। আর দাবাং টু এর আয় ছিল ১৫৫ কোটি রুপি। দাবাং থ্রি ব্যবসার দিক দিয়ে তার প্রিকুয়েল ছবি দু’টিকে ছড়িয়ে যাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

তারপরও এটাকে বাণিজ্যিকভাবে পুরোপুরি সফল বলছেন না বক্স অফিস বিশ্লেষকরা। তাদের মতে, দেশজুড়ে বিশেষ করে দিল্লি আর উত্তরপ্রদেশে এনআরসি ও সিএএ নিয়ে চলা আন্দোলনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ছবিটির ব্যবসা।

হিন্দির পাশাপাশি তামিল, তেলেগু ও কন্নড় ভাষায় দাবাং থ্রি মুক্তি পেয়েছে। ফ্র্যাঞ্চাইজির আগের দুই সিনেমার মতো এবারো রাজ্জো চরিত্রে আছেন সোনাক্ষী সিনহা। এই সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছেন নির্মাতা-অভিনেতা মহেশ মাঞ্জরেকরের মেয়ে সাঈ। আরো অভিনয় করেছেন—আরবাজ খান, মাহি গিল, পঙ্কজ ত্রিপাঠি প্রমুখ।

২০১০ সালে মুক্তি পায় এই সিরিজের প্রথম সিনেমা। পরিচালনা করেন অভিনব কাশ্যপ। এর দুইবছর পর মুক্তি পায় “দাবাং টু”। এটি পরিচালনা করেন আরবাজ খান। আর এবার “দাবাং থ্রি” পরিচালনা করেছেন প্রভুদেবা।

About

Popular Links