• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ সকাল

মুহিত এখন সিনেমায়!

  • প্রকাশিত ০৮:৪৪ রাত সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আল মুহিত
অভিনয়ে নাম লেখাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আল মুহিত। ছবি: সংগৃহীত

সাথে আছেন আরও তিন মন্ত্রী দুই সচিব 

শুরু হচ্ছে বড় পর্দার জন্য অভিনয়শিল্পীর খোঁজ। ১৬  সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য  প্রথমেই নাম লেখাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আল মুহিত সহ আরও তিন মন্ত্রী ও দুই সচিব।

রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে এই প্রতিযোগিতা সেদিন থেকেই আগ্রহী প্রতিযোগীরা আবেদন করতে পারবেন।আর প্রথম ছয়টি আবেদনই করবেন এই ছয় বিশিষ্টজন। প্রথমে এই ছয়টি আবেদন গ্রহণ করা হবে, আর এভাবেই শুরু হবে এই কার্যক্রমের যাত্রা। তবে, সেটি হবে প্রতীকী আবেদন।
চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, “প্রথম দিন প্রতীকীভাবে প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য আবেদন করবেন চার মন্ত্রী ও দুই সচিব”।

এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। বিশেষ অতিথি থাকবেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, তথ্য সচিব এম এ মালেক ও সংস্কৃতি সচিব নাসির উদ্দিন আহমেদ আর প্রথম ছয়টি প্রতীকী আবেদন করবেন এই ছয় জনই।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন চলচ্চিত্র-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, নবীন-প্রবীণ তারকাশিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক ও কলাকুশলীরা। এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নায়ক, নায়িকা, পার্শ্ব-অভিনেতা, খলনায়ক, কমেডি ও শিশুশিল্পী—এই ছয়টি ক্যাটাগরিতে শিল্পী নেওয়া হবে।

গুলজার আরও বলেন, “চলচ্চিত্র শিল্পীদের যে শূন্যতা চলছে, তা পূরণ করার চেষ্টা করব ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে। এর আগে যাঁরা চলচ্চিত্রে এসেছেন, তারাই একসময় চলচ্চিত্রকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরেই আমরা এই প্রতিযোগিতা না করায় আমদের এই শিল্পী সংকট শুরু হয়েছে। আশা করি, সারা দেশ থেকে শিল্পীরা এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে চলচ্চিত্রে নিয়মিত কাজ করবেন”।

সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন বলেন, “আমরা অনেক দিন ধরেই শিল্পী সংকটে ভুগছি। নিজের ইচ্ছেমতো গল্প নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ করা যাচ্ছে না। কারণ সব ধরনের চরিত্রে অভিনয় করার মতো শিল্পী নেই। যে কারণে দর্শকও ছবি দেখে ঠিক তৃপ্ত হতে পারছে না। আশা করি, এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে আমাদের শিল্পী সংকট কেটে যাবে”।

‘নতুন মুখের সন্ধানে-২০১৮’ আয়োজিত হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির উদ্যোগে এবং বিএফডিসির সহযোগিতায় ‘অফট্র্যাক ইভেন্টস অ্যান্ড  অ্যাডভারটাইজিং’ এবং ‘টিম ইঞ্জিন’-এর ব্যবস্থাপনায়। এই প্রতিযোগিতার মূল কার্যক্রম শুরু হবে আগামী ১৬ সেপ্টম্বর থেকে। নতুন শিল্পীদের রেজিস্ট্রেশনও শুরু হবে সেদিন থেকেই। এর সম্প্রচার করবে এশিয়ান টিভি।

প্রসঙ্গত, মান্না, সোহেল চৌধুরী, দিতি, অমিত হাসান, আমিন খান, মিশা সওদাগরের মতো জনপ্রিয় অনেক শিল্পীই চলচ্চিত্রে এসেছেন ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে। এর আগে ১৯৮৪,১৯৮৮ ও ১৯৯০ সালে মোট তিনবার ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে।