• রবিবার, মে ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ রাত

তনুশ্রীকে যৌন হয়রানি করেছিলেন নানা পাটেকার!

  • প্রকাশিত ০৭:৩৭ রাত অক্টোবর ৭, ২০১৮
ছবি : সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

আগামীকাল সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে কথা বলবেন নানা পাটেকার।

ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। গতকাল শনিবার তনুশ্রী মুম্বাইয়ের ওশিওয়ারা পুলিশ স্টেশনে এই অভিযোগ করেন। 

অভিযোগে তনুশ্রী জনপ্রিয় কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্যের নামও উল্লেখ করেছেন। সেখানে বলা হয়, ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিংয়ের সময় নানা পাটেকার তাকে যৌন হয়রানি করেন।

মুম্বাইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (পশ্চিম) মনোজ কুমার শর্মা বার্তা সংস্থা পিটিআইকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে তনুশ্রী দত্তের অভিযোগ মামলা হিসেবে নথিবদ্ধ করা হয়েছে। 

তনুশ্রী বলেন, ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির একটি আইটেম গানের শুটিংয়ের সময় তার শরীরে অশালীনভাবে হাত দেন নানা। ঘটনার প্রতিবাদ করেছিলেন তিনি। কিন্তু ছবির প্রযোজক ও পরিচালক কেউই সেতা কানে তোলেননি। 

এদিকে ‘হাউসফুল ফোর’ ছবির শুটিং শেষে জয়সলমির থেকে মুম্বাই ফিরেছেন নানা পাটেকার। মুম্বাই বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি ১০ বছর আগেই কথা বলেছি। যেটা মিথ্যা সেটা মিথ্যাই।’  আগামীকাল সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে কথা বলবেন নানা পাটেকার।

২০০৮ সালে তনুশ্রী নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে সিনে অ্যান্ড টিভি আর্টিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের (সিনটা) কাছে যৌন হেনস্তার অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। কিন্তু তখন তারা কোনো পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ করেন তনুশ্রী। 

‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির সহকারী পরিচালক শাইনি শেঠি জানিয়েছেন, তনুশ্রীর অভিযোগ সত্য। 

এ বিষয়ে এক বিবৃতিতে সিনটা লিখেছে, ২০০৮ সালে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন তনুশ্রী। তখন সিদ্ধান্ত নিয়েছিল জয়েন্ট ডিসপুট সেটেলমেন্ট কমিটি এবং ইন্ডিয়ান ফিল্ম অ্যান্ড টিভি প্রডিউসারস কাউন্সিল। ওই সিদ্ধান্ত যথাযথ ছিল না। যৌন হেনস্তার অভিযোগ তখন খতিয়ে দেখা হয়নি।