• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৮
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:০৭ রাত

মিটু: 'মগুল' থেকে সরে আসলেন আমির

  • প্রকাশিত ০১:১৬ দুপুর অক্টোবর ১১, ২০১৮
আমির খান
আমির খান। ছবি: সংগৃহীত

যৌন হয়রানির মতো গর্হিত অপরাধের সাথে জড়িতদের সাথে আমির কাজ করবেন না।

প্রয়াত গুলশন কুমারের বায়োপিক 'মগুল' থেকে সরে এসেছেন আমির খান। ‘জলি এলএলবির’ পরিচালক সুভাষ কাপুরের ছবি থেকে কেন সরে আসলেন তা প্রাথমিকভাবে স্পষ্ট ছিল না। তবে সম্প্রতি আমিরের এক টুইট-বার্তা থেকে তার কারণ জানা গেছে।

হলিউডের মতো এবার বলিউডেও চলছে হ্যাশট্যাগ মি-টু আন্দোলন। বেরিয়ে আসছে একের পর এক অসংখ্য যৌন হয়রানির তথ্য। 'ঠাগস অফ হিন্দুস্তান' ছবির ট্রেইলার লঞ্চের দিন তনুশ্রী দত্ত-নানা পাটেকার বিতর্ক নিয়ে তাঁর কাছে জানতে চাইলে তিনি কোনরকম পক্ষপাতিত্ব ছাড়া বললেন, 'যদি এমন কিছু হয়ে থাকে, তবে তা অবশ্যই সঠিকভাবে তদন্ত করা উচিৎ'। 

মিটু আন্দোলনের ফলে যৌন হয়রানির অভিযোগে উঠে এসেছে ভারতীয় অভিনেতা অলোক নাথ-অভিজিত ভট্টাচার্যের মতো খ্যাত নামাদের নামও। কারও কারও বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণের অভিযোগও আনা হয়েছে।আর এসব নিয়েই আমির খান এবং কিরন রাও প্রযোজকদের সাথে বৈঠকে বসেন।

কিছুদিন আগেই আমির একটি বার্তার মাধ্যমে বলিউডে চলমান মিটু আন্দোলনের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে তিনি জানান, এ ধরণের গর্হিত অপরাধের সাথে জড়িতদের সাথে তিনি কাজ করবেন না। এই বার্তার একাংশ ছিল এমন, 'দুই সপ্তাহ আগে যখন মিটু আন্দোলনের মর্মান্তিক ঘটনাগুলো বের হয়ে আসতে শুরু করে, তখন আমাদের নজরে আসে আমরা এমন একজনের সাথে কাজ করতে যাচ্ছিলাম যে যৌন হয়রানির জন্য অভিযুক্ত। তদন্ত শেষে , আমরা জানতে পেরেছি সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে এবং বর্তমানে তার আইনি প্রক্রিয়া চলছে। আমরা কোন তদন্তকারী সংস্থা নই, বিচার করারও আমরা কেউ না- ওটা পুলিশ আর আদালতের কাজ। তাই, এই ঘটনার সাথে জড়িত কারোর নাম কলঙ্কিত না করে, এবং এসব অভিযোগ নিয়ে কোনোরকম উপসংহারে না এসে, আমরা এই ছবি করা থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি'। 


আমির এখানে কোন ছবির কথা বলছেন তার উল্লেখ নেই। তবে 'ঠাগস অফ হিন্দুস্তান'-এর পর ভূষণ কুমারের 'মগুল' ছবির প্রযোজনার সাথে তার সম্পৃক্ততা ছিল। 'মুগল' ছবিটি ভূষণের বাবা টি-সিরিজের প্রতিষ্ঠাতা গুলশান কুমারের জীবনের উপর বায়োপিক ভিত্তিক ছবি। এই ছবিটির নির্দেশনায় ছিলেন অভিযুক্ত সুভাষ কাপুর। আর এই ছবি থেকেই আমির সরে আসছেন বলে ধারণা করছে বলিউড মহল। 

বলিউডের পারফেকশনিস্ট খ্যাত আমির খান যে কোন কাজই বস্তুনিষ্ঠ কারণ ব্যতীত করেন না যেন তা আবারও প্রমাণিত হল।