• রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৪ রাত

আইয়ুব বাচ্চুর শেষ ঠিকানা চট্টগ্রামে

  • প্রকাশিত ০১:৫৪ দুপুর অক্টোবর ১৮, ২০১৮
আইয়ুব বাচ্চু
চলে গেলেন আইয়ুব বাচ্চু। ছবি: সৌজন্য

দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যান্ড এলআরবির দল নেতা আইয়ুব বাচ্চু ছিলেন একাধারে গায়ক, গিটারিস্ট, গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক।

গিটার লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চু এবার ফিরছেন মায়ের কোলে। পারিবারিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তার শেষ ঠিকানা হচ্ছে চট্টগ্রামের এনায়েত বাজার পারিবারিক কবরস্থানে, মায়ের কবরে। কারণ, এই এনায়েত বাজারেই তার জন্ম আর বেড়ে ওঠা। 

১৮ অক্টোবর দুপুরে পারিবারিকভাবে এই সিদ্ধান্ত নেন পরিবারের সদস্যরাসহ বামবা, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের নেতারা।   

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, জানাজা ও শহীদ মিনারে নেওয়ার বিষয়ে বেশ কয়েকবার সিদ্ধান্ত বদল হয়েছে নানা কারণে। তবে সর্বসম্মতিক্রমে সর্বশেষ সিদ্ধান্ত হলো, কাল ১৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে জাতীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে। সেখান থেকে জুমার নামাজের সময় নিয়ে যাওয়া হবে জাতীয় ঈদগাহ মাঠে। বাদ জুমা প্রথম জানাজা শেষে মরদেহ রাখা হবে স্কয়ার হাসপাতালের হিমাগারে।

একই দিন রাতে অস্ট্রেলিয়া থেকে আইয়ুব বাচ্চুর মেয়ে রাজকন্যা ঢাকায় পৌঁছালে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে চট্টগ্রামের এনায়েত বাজারে। ধারণা করা হচ্ছে, ২০ অক্টোবর সকাল নাগাদ আরেকটি জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মায়ের কবরেই সমাহিত করা হবে আইয়ুব বাচ্চুকে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, গত ১৬ অক্টোবর রাতে রংপুরে একটি কনসার্ট শেষ করে ১৭ অক্টোবর দুপুরে ঢাকায় ফিরেন আইয়ুব বাচ্চু। আজ (১৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাসায় হার্ট অ্যাটাক করেন তিনি। দ্রুত তাকে স্কয়ার হাসপাতালে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।  

দেশের শীর্ষস্থানীয় ব্যান্ড এলআরবির দল নেতা আইয়ুব বাচ্চু ছিলেন একাধারে গায়ক, গিটারিস্ট, গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক।