• সোমবার, আগস্ট ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪২ সকাল

বিতর্কিত মিউজিক ভিডিওতে সমালোচনার ঝড়ে সালমান মুক্তাদির

  • প্রকাশিত ০৬:০৫ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯
সালমান মুক্তাদির-অভদ্র প্রেম
সালমান মুক্তাদিরের 'অভদ্র প্রেম' মিউজিক ভিডিওর একটি দৃশ্য

ওয়াক্কাস আহমেদ লিখেছেন, "আমার মতো কে কে ডিসলাইক করতে এসেছেন?"

১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবস। এ দিনটিকে সামনে রেখে জনপ্রিয়  ইউটিউব তারকা সালমান মুক্তাদির প্রকাশ করেছেন গান 'অভদ্র প্রেম'। গতকাল শনিবার গানটি তার ‘সালমান দ্য ব্রাউন ফিশ’ ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পায়। 

গানটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া ও ইন্টারনেটে চলছে তীব্র সমালোচনা। গানটির চিত্রায়নকে "অশ্লীল" আখ্যা দিয়ে তর্ক-বিতর্কও চলছে মিডিয়াজুড়ে। 

এই রিপোর্টটি লেখার আগ পর্যন্ত 'অভদ্র প্রেম' গানটি ইউটিউবে দেখেছে চার লাখ আঠারো হাজার ইউটিউব ভিউয়ার। তবে গানটি যে দর্শকদের মনে ধরেনি তা বোঝা যায় সেটিতে পড়া লাইক-ডিসলাইকের সংখ্যা দেখে। 

ইউটিউবে গানটি লাইক দিয়েছেন ১৯ হাজার জন। বিপরীতে ডিসলাইক পড়েছে ৮০ হাজার, যা লাইকের চার গুণেরও বেশি। 

তবে শুধু ডিসলাইকই নয়, গানটি প্রকাশের পর থেকে ‘সালমান দ্য ব্রাউন ফিশ’ চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যাও কমেছে। ঢাকা ট্রিবিউনের এক অনুসন্ধানে দেখা যায়, গতকাল থেকে চ্যানেলটিতে সাবস্ক্রাইবার কমেছে প্রায় এক লাখের মতো। 

প্রতিমুহূর্তেই সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা কমছে। রিপোর্টটি লেখার সময়ে চ্যানেলটিতে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা ছিল ১১ লাখ ৮ হাজার ৭৪৫। 


এছাড়াও ইউটিউবের কমেন্ট সেকশনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে দর্শকরা। একইসাথে চলছে কুরুচিকর ভাষায় মন্তব্য।  

রিয়া আক্তার লাবনী নামের একজন মন্তব্যে লিখেছেন, "বাঙালি হয়ে তুমি এইটা কি বানালে। ডিসলাইক। আনসাবস্ক্রাইব দুটোই করে দিলাম। বেয়াদব।"

ওয়াক্কাস আহমেদ লিখেছেন, "আমার মতো কে কে ডিসলাইক করতে এসেছেন?"

সালমানের পক্ষেও অবস্থান নিয়েছেন কেউ কেউ। রিগ্যান খান নামের একজন লিখেছেন, "এই চ্যানেলে অশিক্ষিত মূর্খদের ঠাঁই নেই। যারা অশিক্ষিত মূর্খ আছেন তারা আনসাবস্ক্রাইব করে তাড়াতাড়ি বের হয়ে যান।"

এর আগে ৬ ফেব্রুয়ারি সালমান মুক্তাদির তার ইউটিউব চ্যানেলে "অভদ্র প্রেম" গানটির টিজার প্রকাশের পর থেকেই বিষয়টি  নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

আরও পড়ুন : ভাইরাল ভিডিও নিয়ে মুখ খুললেন সালমান-জেসিয়া