• রবিবার, মে ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৫৭ রাত

তথ্যমন্ত্রী: ইউটিউবের কল্যাণে হিরো আলম ভারতেও জনপ্রিয়

  • প্রকাশিত ০৬:০৪ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৯
হিরো আলম
হিরো আলম। ছবি: সংগৃহীত।

শুক্রবার কলকাতায় দ্বিতীয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনশেষে তিনি একথা বলেন

ইউটিউবের কল্যাণে হিরো আলম ভারতেও জনপ্রিয় বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। শুক্রবার সন্ধ্যায় কলকাতার নন্দন-২ প্রেক্ষাগৃহে দ্বিতীয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধন করে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোতে জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, "সমগ্র পৃথিবীকে ইন্টারনেট এক জায়গায় নিয়ে এসেছে। এখন আর কোনও রাজনৈতিক সীমারেখা কিংবা লাল ফিতার দৌরত্ব অথবা আমলাতান্ত্রিক জটিলতা সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডকে আটকে রাখতে পারবে না। কলকাতায় আসতে আসতে আমি শুনলাম এখানে নাকি হিরো আলম অনেক বেশি জনপ্রিয়। এটা সম্ভব হয়েছে ইউটেউবের জন্য"। এসময় দুই দেশের সাংস্কৃতিক আদান-প্রদানে আরো কাজ করতে হবে বলেও জানান ড. হাছান মাহমুদ।

অনুষ্ঠানের আরেক বক্তার এক প্রশ্নের উত্তরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, "পশ্চিমবঙ্গের উত্তরের জেলাগুলোর সাথে বাংলাদেশের যোগাযোগ বাড়াতে বাগডোগরা বিমানবন্দরের সঙ্গে বাংলাদেশের বিমান যোগাযোগ স্থাপন করার বিষয়টি বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলাচনা করবো।"

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস এবং অভিনেত্রী জয়া আহসান। অনুষ্ঠানে তারা দুই বাংলার চলচ্চিত্র অঙ্গন নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করেন। 

এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসাবে উৎসবের উদ্বোধনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত রিভা গাঙ্গুলী দাস, পশ্চিমবঙ্গের পর্যটন বিষয়কমন্ত্রী দৌতম দেব এবং বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা গৌতম ঘোষ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপরাষ্ট্রদূত তৌফিক হাসান।

উল্লেখ্য, চার দিনের এই উৎসবে দেখানো হবে বাংলাদেশের মোট ২৩ টি চলচ্চিত্র। এর মধ্যে আব্দুল্লাহ আল হারুনের আমাদের 'বঙ্গবন্ধু', হুমায়ূণ আহমেদের 'ঘেটুপুত্র কমলা', সাইফুল ইসলাম মানুর 'পুত্র', গিয়াস উদ্দিন সেলিমের 'স্বপ্নজাল', তানভীর মোকাম্মেলের 'জীবনঢুলি', রওশন আরা নীপার 'মহুয়া সুন্দরী' উল্লেখযোগ্য।