• বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:২৭ রাত

‘লাইম’ রোগ ধরা পড়েছে বিবারের শরীরে

  • প্রকাশিত ১২:০৯ দুপুর জানুয়ারী ৯, ২০২০
জাস্টিন বিবার
গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসের একটি অনুষ্ঠানে বিবার এএফপি

বেশ কিছুদিন ধরেই জাস্টিন বিবারের চেহারা ও ত্বকের ওপরে ওঠা ফুসকুড়ি নিয়ে সমালোচনা চলছিল

ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগ ‘‘লাইম’’ বাসা বেঁধেছে কানাডিয়ান পপ গায়ক জাস্টিন বিবারের শরীরে। এই রোগের কারণ “বোরেলিয়া বার্গডোরফেরি” নামে একধরনের ব্যাকটেরিয়া। ব্লাকলেগড টিকস পোকার কামড়ে এই এই ব্যাকটেরিয়া মানুষের শরীরে প্রবেশ করে।

বুধবার (৮ জানুয়ারি) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে বিবারের দেওয়া এক পোস্টের বরাত দিয়ে এমন খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা বিবিসি।

ইনস্টাগ্রামের পোস্টে বিবার লিখেন, “প্রায় দুই বছর ধরে ভুগছি, তবে এখন সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছি। এখন পর্যন্ত রোগটি সারেনি, তবে আমি সুস্থ হয়ে ফিরবো।”

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন ধরেই জাস্টিন বিবারের চেহারা ও ত্বকের ওপরে ওঠা ফুসকুড়ি নিয়ে সমালোচনা চলছিল। অনেকেই বলছিলেন তিনি সম্ভবত “মাদকাসক্ত”। 

বিষয়টি উল্লেখ করে ইনস্টাগ্রামে বিবার লিখেছেন, “তারা (সমালোচনাকারী) বুঝতে পারেননি যে আমার লাইম রোগ হয়েছে। শুধু তাই নয়, এই ক্রনিক রোগে আমার ত্বক, মস্তিষ্ক, শক্তি এবং পুরো শরীরেই প্রভাব পড়েছে।”

লাইম রোগে আক্রান্ত হলে জ্বর, মাথাব্যথা, ক্লান্তি, অস্থিসন্ধিতে ব্যথা এবং ত্বকে ফুসকুড়ি দেখা দেয়। সঠিক চিকিৎসা না হলে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে হৃৎপিণ্ড এবং স্নায়ুতন্ত্রে। অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই এই রোগটি নিরাময় করা সম্ভব। তবে বেশি ছড়িয়ে পড়লে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে।