• শনিবার, এপ্রিল ০৪, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৫ রাত

দীপিকাকে ‘পরামর্শ’ দিলেন যোগগুরু রামদেব!

  • প্রকাশিত ০৮:৩১ রাত জানুয়ারী ১৫, ২০২০
দীপিকা-জেএনইউ
মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) নয়াদিল্লির জেএনইউ-তে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দেখা করেন দীপিকা পাড়ুকোন সংগৃহীত

রামদেব বলেন, দীপিকা অত্যন্ত ভালো অভিনেত্রী হলেও আগে ওর ভারতের সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ইস্যুগুলি নিয়ে পড়াশোনা করা উচিত। তাতে দেশ সম্পর্কে জ্ঞান আরও বাড়বে

ভারতের রাজধানী দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের (জেএনইউ) শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় বলিউড তারকারা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। সেই ঘটনায় সরাসরি জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পাশে দাঁড়ান বলিউডের এসময়ের আলোচিত অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনও। আর তারপর থেকেই ওই ইস্যুতে রাজনৈতিক আলোচনা-সমালোচনায় ছিলেন তিনি। 

এবার দীপিকার বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানো নিয়ে মন্তব্য করলেন বাবা রামদেব। বলিউড অভিনেত্রীকে সুপরামর্শ দিয়েছেন ভারতের আলোচিত এই যোগগুরু।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ইন্দোরে একটি অনুষ্ঠানে দীপিকাকে কটাক্ষ করে রামদেব বলেন, “দীপিকা অত্যন্ত ভালো অভিনেত্রী। তবে আগে  ওর ভারতের সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ইস্যুগুলি নিয়ে পড়াশোনা করা উচিত। তাতে দেশ সম্পর্কে তার আরও জ্ঞান বাড়বে। জ্ঞান আহরণের পরেই তিনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।”

সংশোধনী নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)’র দৃঢ়ভাবে সমর্থন করে রামদেব বলেন, “যারা সিএএ’র পুরো নাম পর্যন্ত জানেন না, তারাও মোদী সম্পর্কে ‘অশালীন’ মন্তব্য করতে শুরু করেছে। প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, এই আইন নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়ার জন্য নয়। তবুও মানুষ এনিয়ে আন্দোলন করছে আগুন জ্বালাচ্ছে।”

৫ জানুয়ারি ভারতের রাজধানী দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে মুখোশধারীরা হামলা চালায়। এতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ ৩৪ জন আহত হন। হামলায় আক্রান্ত প্রতিবাদী শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন দীপিকা। তার এই সাহসী পদক্ষেপকে অনেকে সাধুবাদ জানালেও বিজেপি'র অনেক নেতা দীপিকার এই পদক্ষেপের ব্যাপক সমালোচনা করেন।