Wednesday, May 29, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ছাড়পত্র পেতে পারে ইমরান-অর্ষার ‘সাহস’

গত জুনে ‘সাহস’-কে প্রদর্শন অযোগ্য হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিল সেন্সর বোর্ড

আপডেট : ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩১ পিএম

সুনির্দিষ্ট কয়েকটি কারণে মোস্তাফিজুর নূর ইমরান ও নাজিয়া হক অর্ষা অভিনীত “সাহস” সিনেমাটিকে “প্রদর্শন অযোগ্য” হিসেবে ঘোষণা করেছিল সেন্সর বোর্ড। পরে আপিল বিভাগেও নাকচ হয়ে যায় ছবিটি প্রদর্শনের আবেদন। এরপর আবার কিছু দৃশ্য কাটছাঁট এবং সংযোজন করে নতুন সিনেমা হিসেবে ছাড়পত্রের জন্য সেন্সর বোর্ডে এটি জমা দেন নির্মাতা সাজ্জাদ খান। সব দেখে নতুন “সাহস” পছন্দ হয়েছে বোর্ডের। 

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নির্মাতা সাজ্জাদ খানের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায় অনলাইন গণমাধ্যম বাংলা ট্রিবিউন।

এছাড়া, সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া অভিনেত্রী অর্ষার পোস্ট থেকেও এমন ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে সাজ্জাদ বলেন, “সিনেমা অযোগ্য বলে নয়, আমরা প্রথমবার সময়মতো আপিল করতে না পারায় সেটি নাকচ হয়েছিল। পরে নতুন করে ছবিটি সেন্সরের আবেদন করি। আমাকে জানানো হয়েছে, এবার তারা সন্তুষ্ট।”

জানা গেছে, বোর্ড থেকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে, প্রদর্শনের জন্য ছাড়পত্র পাচ্ছে চলচ্চিত্রটি। তবে, পত্রটি এখনও হাতে পাননি নির্মাতা।

তিনি জানান, সেন্সর বোর্ড নতুন করে একটা ছোট সাবটাইটেল সংযোজন করতে বলেছে। সেটি জমা দিয়ে এ সপ্তাহেই সেন্সর সনদ পেতে পারেন তিনি।

গত জুনে ‘‘সাহস’’-কে প্রদর্শন অযোগ্য হিসেবে ঘোষণা দিয়েছিল সেন্সর বোর্ড। 

এ বিষয়ে গত ১৬ জুন সেন্সর বোর্ড সচিব মো. মমিনুল হক বলেছিলেন, ‘‘এতে অশ্লীল সংলাপ, গালিগালাজ ও সহিংসতার দৃশ্যের পরিমাণ এতই বেশি যে তা সেন্সর করতে গেলে ছবিতে আর কিছু থাকবে না। আর কাহিনির ধারাবাহিকতাও নেই। তাই এটি প্রদর্শনযোগ্য নয়।’’

এরপর গত ১৯ আগস্ট তথ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. সাইফুল ইসলামের সই করা এক প্রজ্ঞাপনে আপিল নাকচের বিষয়টি জানানো হয়।

About

Popular Links