Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

‘শেরশাহ’ ছবির বিশেষ দৃশ্য নিয়ে মুখ খুললেন সিদ্ধার্থ

সেই দৃশ্য ছাড়াও সিদ্ধার্থ এবং কিয়ারা পরস্পরের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়েও কথা বলেছেন

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩৮ পিএম

ওটিটি প্লাটফর্ম অ্যামাজন প্রাইমে কিছুদিন আগে মুক্তি পাওয়া ‘‘শেরশাহ’’ ছবির সাফল্যে চারদিক থেকে প্রশংসায় সিক্ত হচ্ছেন সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও কিয়ারা আদভানি। সেই সাফল্যের অংশ হিসেবেই সিদ্ধার্থ এবং কিয়ারা সম্প্রতি কপিল শর্মা আয়োজিত একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়েছিলেন। 

সেখানে ‘‘শেরশাহ’’ চলচ্চিত্রে চুম্বন দৃশ্য থেকে শুরু করে অনেক বিষয় নিয়েই কথা বলেন দুজন।

সাম্প্রতিক সময়ে গুঞ্জন চলছে চলচ্চিত্র ফ্রেমের মতো সিদ্ধার্থ এবং কিয়ারা বাস্তব জীবনেও প্রেমের সম্পর্কে রয়েছেন। শোয়ের সাম্প্রতিক “আন্সেন্সরড” পর্বে সেই প্রসঙ্গেই ‘‘শেরশাহ’’ চলচ্চিত্রে দুজনের চুম্বন দৃশ্যটি নিয়ে কপিল শর্মা সিদ্ধার্থকে জিজ্ঞাসা করেন, ‘‘চুম্বন দৃশ্যটি স্ক্রিপ্টেরই একটি অংশ নাকি এটি আপনার নিজেরই মস্তিষ্কপ্রসূত ছিল?’’

কপিলের প্রশ্নের জবাবে সিদ্ধার্থ বলেন, ‘‘আরে না না! পুরো দৃশ্যটাই ছিল চলচ্চিত্রের চরিত্রের জন্য। অনেক কষ্টে এবং জোর করে আমাদের এটি করতে হয়েছিল।’’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ কথা জানা যায়।

তবে তাতেও কপিল শর্মা সিদ্ধার্থকে সহজে ছাড়েননি। কপিল শর্মার শোয়ে সিদ্ধার্থ জানান, ‘‘শেরশাহ’’ চলচ্চিত্রের গল্পের ৯০%-ই ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রার জীবনে ঘটেছিল। এর পরিপ্রেক্ষিতে কপিল দ্রুতই তাকে চলচ্চিত্রের বাকি ১০% সম্পর্কে ফিরতি জিজ্ঞাসা করেন। এর প্রতুত্তরে সিদ্ধার্থ-কিয়ারা দুজনই হাসতে হাসতে গড়িয়ে পড়েন।

এদিকে, কিয়ারার সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে কথা বলতে গিয়ে সিদ্ধার্থ ইটাইমসকে বলেন, “আমি দিল্লির ছেলে এবং শুরু থেকে ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে সংযুক্ত না থাকলেও অনেক বছর ধরেই এখানে আছি। তিনিও (কিয়ারা আদভানি) বেশ কয়েক বছর ধরে কাজ করছেন। আমাদের দুজনেরই ব্যক্তিগত জীবন রয়েছে। কখনও কখনও এই সব বিষয়ে আপনি এতটাই জড়িয়ে পড়েন যে আপনি স্বাভাবিক জীবনযাপনও ভুলে যান। আমি মনে করি আমাদের দুজনেরই ব্যক্তিগত জীবন আছে এবং সেখানেই আমরা পরস্পরের সঙ্গে সংযুক্ত।”

কিয়ারাকে তার সহ-অভিনেতার সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান সিদ্ধার্থ ইন্ডাস্ট্রিতে তার সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের একজন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “সহ অভিনেতা হিসাবে সিদ্ধার্থ অত্যন্ত আন্তরিক এবং মনোযোগী। কাজের জন্য অনেক লম্বা প্রস্তুতি নেন। ঠিক যেমনভাবে আমি চলচ্চিত্রে কাজ করতে পছন্দ করি ঠিক সেরকম। সুতরাং, সেই দিক থেকে আমরা দুজনেই খুব ভালভাবে কাজ করতে পেরেছি। আমি বলব তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে আমার সবচেয়ে কাছের বন্ধুদের একজন। আমি মনে করি, এমনকি একজন বন্ধু হিসেবেও, সে সর্বদাই প্রাণোচ্ছ্বল একজন।”

About

Popular Links