Tuesday, June 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ভারতে সাড়া জাগানো ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ সিঙ্গাপুরে নিষিদ্ধ

মূলত বিষয়বস্তু নিয়ম-নীতির বাইরে থাকায় এবং মুসলমানদের প্রতি একপাক্ষিক দৃষ্টিভঙ্গির কারণেই সিঙ্গাপুরে নিষিদ্ধ হয়েছে সিনেমাটি

আপডেট : ১০ মে ২০২২, ০৮:৩৭ পিএম

বর্তমান সময়ের কোনো বড় তারকা, আর দশটা বলিউড ছবির মতো নাচ-গান, মনোরঞ্জন বা দর্শক আকর্ষণের চিরাচরিত মসলা না থাকলেও ভারতীয় বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসা করেছিল “দ্য কাশ্মীর ফাইলস”। তবে সিঙ্গাপুরে বহুল আলোচিত এ চলচ্চিত্রটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। মূলত বিষয়বস্তু নিয়ম-নীতির বাইরে থাকায় এবং এতে মুসলমানদের প্রতি একপাক্ষিক দৃষ্টিভঙ্গির কারণেই দেশটিতে নিষিদ্ধ হয়েছে সিনেমাটি।

সিঙ্গাপুরের চলচ্চিত্র নিয়ন্ত্রক সংস্থা দ্য ইনফোকম মিডিয়া ডেভেলপমেন্ট অথরিটি, দেশটির সংস্কৃতি ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যৌথ বিবৃতির বরাত দিয়ে করা এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

বিবৃতিতে বলা হয়, কাহিনি ও দৃশ্যের কারণে চলচ্চিত্রটি মুসলিম এবং হিন্দু ধর্মের মধ্যে বৈরিতা সৃষ্টি করতে পারে। দুই পক্ষের মধ্যে বিদ্বেষ বাড়ার ফলে সিঙ্গাপুরের সামাজিক সম্প্রীতি নষ্ট হতে পারে।


আরও পড়ুন- সুপারহিট ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ নিয়ে তীব্র বিতর্ক


সন্ত্রাসবাদীদের আক্রমণের শিকার হয়ে কাশ্মীর থেকে হিন্দু পণ্ডিতদের গণপ্রস্থান বা গণবিতাড়ন নিয়ে বিবেক অগ্নিহোত্রী নির্মিত  “দ্য কাশ্মীর ফাইলস” সিনেমাটি গত ১১ মার্চ মুক্তি পায়। অনুপম খের, মিঠুন চক্রবর্তী, পল্লবী জোশি, দর্শন কুমার, পুনীত ইসার, মৃণাল কুলকার্নি, চিন্ময় মণ্ডলেকর প্রমুখ অভিনীত ছবিটি মুক্তির পর বক্স অফিসে সাড়া ফেললেও হিন্দুদের নিপীড়ণের নামে অত্যন্ত উস্কানিমূলক এবং একতরফা মুসলিম বিদ্বেষ দেখিয়েছে বলে অভিযোগ উঠে।

সমালোচকদের দাবি ছিল, সিনেমাটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। অর্ধসত্য ও অনেকটা মিথ্যার উপর ভিত্তি করে ছবিটি বানানো হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও এ নিয়ে বিভিন্ন কথাবার্তা হয়। সিনেমাটির পক্ষে সমর্থন জানিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই সঙ্গে বিজেপি-শাসিত অনেক রাজ্যই সিনেমাটিকে করমুক্ত বলে ঘোষণা করে।

About

Popular Links