Friday, May 24, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

শিখোর ব্র্যান্ড ক্যাম্পেইনে যোগ দিলেন চঞ্চল চৌধুরী

বর্তমানে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলায় ৬ লক্ষ ১০ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী শিখো অ্যাপে প্রতিদিন গড়ে ৬৮ মিনিট করে ব্যয় করে

আপডেট : ২৩ আগস্ট ২০২২, ১২:৫২ পিএম

পড়ালেখা সহজভাবে শেখাতে এবং পরীক্ষায় ভালো ফলাফলের লক্ষ্যে মানসম্মত শিক্ষাকে সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী করতে পড়ালেখার ডিজিটাল দুনিয়া শিখো (Shikho)। আর সেই যাত্রায় এবার যুক্ত হয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী। দেশের সর্বাধুনিক শিক্ষা প্রযুক্তি (এডটেক) প্রতিষ্ঠান শিখো’র নতুন ক্যাম্পেইন “শিখবো, জিতবো”-এর প্রচারণায় যুক্ত হয়েছেন তিনি।

২০১৯ সালে যাত্রা শুরু করে শিখো। বাংলাদেশের জাতীয় পাঠ্যক্রমকে সহজ ও আনন্দদায়ক করে মানসম্মত শিক্ষাকে সবার জন্য সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী করে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে এই প্রতিষ্ঠানটি। তারই ধারাবাহিকতায় শিখো এবার শিক্ষার্থীদের বাস্তব জীবনের উদাহরণের মাধ্যমে শিখতে এবং জীবনের সকল পরীক্ষায় সফল হবার আত্মবিশ্বাস গড়ে তুলতে কাজ করে যাচ্ছে।

শিখো-তে রয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় পাঠ্যক্রম অন্তর্ভুক্ত এসএসসি, এইচএসসি, বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা সিলেবাসসহ বিভিন্ন অ্যাকাডেমিক ও প্রফেশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্টের কোর্স। শিখো’র সহ-প্রতিষ্ঠাতা শাহীর চৌধুরী (সিইও) এবং জিশান জাকারিয়া (সিওও) তাদের এক দশকের আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে জাতীয় পাঠ্যক্রমকে একবিংশ শতকের উপযোগী করে তুলতে কাজ করছেন।

ভিজুয়াল লার্নিংয়ের জন্য অ্যানিমেটেড ভিডিও কন্টেন্টের পথিকৃৎ হিসেবে এবং বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র পার্সোনালাইজড আর ডেটা-নির্ভর লার্নিং অ্যাপ চালু করেছেন তারা। যা নিয়মিত পড়াশোনাকে “গেমিফাই” করার মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের শেখার অভিজ্ঞতাকে করেছে আরও ইন্টার‍্যাক্টিভ এবং আকর্ষণীয়। এবার সেই শেখার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে জিতে যাওয়ার অনুপ্রেরণা যোগাতে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী।

বর্তমানে বাংলাদেশের ৬৪টি জেলায় ৬ লক্ষ ১০ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী শিখো অ্যাপে প্রতিদিন গড়ে ৬৮ মিনিট করে ব্যয় করে থাকে।

শিখোর সিইও শাহীর চৌধুরী “শিখবো, জিতবো” ক্যাম্পেইনের প্রচারণায় চঞ্চল চৌধুরীর যুক্ত হওয়া সম্পর্কে বলেন, “আমরা Shikho’র এই ক্যাম্পেইনের জন্য এমন একজন মানুষকে খুঁজছিলাম যিনি নিজেই একজন অনুপ্রেরণা এবং একজন বাবা। আর এজন্য খ্যাতিমান অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী ছিলেন আমাদের প্রথম পছন্দ। তাকে এই ক্যাম্পেইনে যুক্ত করতে পেরে আমরা ভীষণ আনন্দিত।”

শিখো’র মাধ্যমে একজন শিক্ষার্থী খুবই সহজে এবং কম খরচে বিষয়ভিত্তিক পাঠ্যসূচির মাধ্যমে নিজস্ব গতিতে শুরু করতে পারে তার শেখার যাত্রা। অ্যাপের ভেতর অ্যানিমেটেড ভিডিও লেসনের মাধ্যমে প্রতিটি বিষয়কে সহজভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে, প্রায়োগিক সূত্রসমূহের দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার দেখানো হয়েছে, যা যেকোনো পাঠ্যক্রমকে সবার জন্য বোধগম্য করে তোলে। সমাধানসহ বিশাল প্রশ্নব্যাংকের মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে অনুশীলনী।

আরও রয়েছে সংজ্ঞা, সূত্র, প্রমাণ এবং বিভিন্ন “হ্যাক” সম্বলিত স্মার্ট নোট এবং অফলাইন কোচিং সেন্টারে শিক্ষকতার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন শিক্ষকদের সঙ্গে লাইভ ক্লাসে অংশগ্রহণের সুযোগ।

রিয়েল-টাইম ডেটা অ্যানালাইসিসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পারফর্মেন্স ও অগ্রগতি ট্র্যাক করে অ্যাপটি প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে বিষয়ভিত্তিক দুর্বলতা দূর করার পরামর্শ দেয়, যা একজন অভিভাবককে সন্তানের শিক্ষা নিয়ে চিন্তামুক্ত করতে পারে। সর্বোপরি দেশের শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ-মাধ্যমিক, প্রফেশনাল লার্নিংসহ সম্পূর্ণ শিক্ষাযাত্রায় অবদান রাখতে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

২০২১ সালের আগস্ট মাসের পর শিখো’র মাত্র ৬০ জনের টিমটি এখন প্রায় ৪০০ জনের একটি শক্তিশালী টিমে পরিণত হয়েছে। তারা প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন স্কুল-কলেজ পরবর্তী পড়ালেখা আরও কার্যকর এবং আনন্দদায়ক করে তুলতে। সেইসঙ্গে শিক্ষার্থীদের জন্য আরও সহজলভ্য ও সময়োপযোগী কোর্স নিয়ে আসছেন, যা সন্তানের পড়ালেখা খরচ নিয়ে মা-বাবাদের দুশ্চিন্তাকে দূর করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে তারা বিশ্বাস করেন।

এছাড়াও একটি “টিচার্স একাডেমি” তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে শিখো’র প্রতিষ্ঠাতাদের। যার মাধ্যমে অভিজ্ঞ শিক্ষক নিয়োগ এবং তাদের আরও প্রশিক্ষিত করে তোলা হবে। যাতে করে তারা শিখো প্ল্যাটফর্মে শিক্ষার্থীদের বুঝে শেখার এবং জিতে যাওয়ার সঠিক দিক নির্দেশনা দিতে পারেন। একজন শিক্ষার্থীর শিক্ষাযাত্রায় পরিপূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্যে শিখো প্রতিনিয়ত গড়ে তুলছে কার্যকরী লার্নিং ম্যাটেরিয়াল যা সৃজনশীল, প্রায়োগিক এবং যুগোপযোগী।

শিক্ষা প্রযুক্তির উন্নয়নে বিগত বছরের আগস্ট মাসে প্রথম সিড রাউন্ডে ১৩ লক্ষ মার্কিন ডলার বিনিয়োগ পায় শিখো। এবছরের মার্চ মাসে আরও ৪০ লক্ষ মার্কিন ডলার ফাইন্যান্সিংয়ের মাধ্যমে দ্বিতীয় সিড রাউন্ড শেষ হওয়ার ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। দুইটি রাউন্ড মিলিয়ে শিখো সর্বমোট ৫৩ লক্ষ মার্কিন ডলার (৪৫ কোটি টাকা) বৈশ্বিক বিনিয়োগ পেয়েছে- যা এখন পর্যন্ত একটি বাংলাদেশি স্টার্টআপের সর্ববৃহৎ সিড রাউন্ড।

শিখো অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে গুগল প্লে-স্টোর থেকে এবং আরও জানতে ভিজিট করুন shikho.com

About

Popular Links