Saturday, May 25, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

স্ত্রীর পর নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে গৃহপরিচারিকাকে নির্যাতনের অভিযোগ

ওই গৃহপরিচারিকার অভিযোগ, বেতন পরিশোধ না করেই তাকে দুবাই রেখে এসেছেন নওয়াজউদ্দিন। তিনি দেশে ফেরার আর্তিি জানান

আপডেট : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০১:২৬ পিএম

ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ভালোই ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীকে। কিছুদিন আগেই তার বিরুদ্ধে নির্যাতন এবং খেতে না দেওয়ার অভিযোগ তুলেছিলেন অভিযোগ তুলেছিলেন স্ত্রী আলিয়া সিদ্দিকী। এমনকি এ কারণে মুম্বাইয়ের একটি আদালত বলিউড অভিনেতাকে আইনি নোটিশও পাঠিয়েছে।

মুম্বাইয়ে বছরখানেক আগে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী যে প্রাসাদসম বাংলো বানিয়েছেন তা নিয়েই এখন সব ঝামেলা। দাম্পত্য জীবনের এসব ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে আবারও নির্যাতনের অভিযোগ। এবার বলিউড এনেছেন তার দুবাইয়ের বাড়ির পরিচারিকা স্বপ্না রবিন মসিহ।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নওয়াজউদ্দিনের স্ত্রী আলিয়ার আইনজীবী রিজওয়ানের পোস্ট করা ভিডিওতে নওয়াজউদ্দিনের দুবাইয়ের বাড়ির পরিচারিকা স্বপ্না রবিন মসিহকে কেঁদে কেঁদে বলতে দেখা যায়, তিনি দুবাইয়ে আটকে পড়েছেন। এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

বিবৃতিতে নওয়াজের বিরুদ্ধে স্বপ্নাকে ভুল উপায়ে নিয়োগ এবং ভিসা ফিয়ের অজুহাতে তাকে বেতন না দেওয়ার অভিযোগ তুলেছেন রিজওয়ান। তার ভাষ্যমতে, সরকারি নথিতে স্বপ্নাকে একটি অজানা প্রতিষ্ঠানে সেলস ম্যানেজার হিসাবে নিয়োগ দেখানো হয়েছে। কিন্তু তিনি আসলে নওয়াজউদ্দিনের নাবালক বাচ্চাদের যত্ন নিচ্ছিলেন যখন তারা দুবাইয়ে পড়াশোনা করছিল।

আলিয়ার আইনজীবী রিজওয়ানের কাছে স্বপ্না অভিযোগ করেন, বেঁচে থাকার জন্য কোনো খাবার বা অর্থ না রেখে নওয়াজউদ্দিন তাকে দুবাইয়ে সম্পূর্ণভাবে পরিত্যাগ করেছেন। পাশাপাশি মেয়েটিকে উদ্ধারের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়ারও আবেদন জানান রিজওয়ান।

ভিডিওতে কাঁদতে কাঁদতে নওয়াজের কাছে স্বপ্না আবেদন জানান যেন অবিলম্বে তার বকেয়া টাকা পরিশোধ করা হয় এবং ভারতে তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হয়।

২০২১ সালে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর স্ত্রী আলিয়া দুই সন্তানকে নিয়ে দুবাইয়ে চলে যান। এ বছরের জানুয়ারিতে তিনি ভারতে ফিরে আসেন। এরপর থেকে অভিনেতার সঙ্গে আন্ধেরির বাড়িটি নিয়ে আইনি লড়াই চলছে তার। এমনকি তাদের বিয়ে নিয়েও রয়েছে আইনি জটিলতা।

সম্প্রতি নওয়াজউদ্দিনের আইনজীবী দাবি করেন, আলিয়া এখনও তার প্রথম স্বামী বিনয় ভার্গবের সঙ্গে বিবাহিত। নওয়াজউদ্দিন এবং আলিয়া ২০১১ সালে বিয়ে করেন। এ দম্পতির সংসারে রয়েছে দুই সন্তান- মেয়ে শোরা এবং ছেলে ইয়ানি। শোনা যাচ্ছে তারাও শিগগিরই ভারতে ফিরে আসবে।

এর আগে, পুলিশের কাছে গিয়ে নওয়াজের মায়ের নামে এফআইআর করেছিলেন আলিয়া। সেখানে তিনি অভিযোগ করেন, তাকে খেতে তো দেওয়া হচ্ছেই না; ব্যবহার করতে দেওয়া হচ্ছে না বাড়ির বাথরুমও। এর কয়েকদিন পরেই আবার এক ভিডিওতে দেখা যায় আলিয়া নওয়াজকে তার নিজের বাড়িতেই ঢুকতে দিচ্ছেন না।

About

Popular Links