Thursday, May 23, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

ডিপজল: প্রয়োজনে কাফনের কাপড় পরে রাজপথে নামবো

ডিপজল বলেন, ‘আগে যখন চলচ্চিত্রে অস্থিরতা ছিল, তখন আমরাই উত্তরণ করেছিলাম। সেভাবেই করতে হবে’

আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৫:৫২ পিএম

দেশে বলিউডের সিনেমা মুক্তির আলোচনার মধ্যেই চলচ্চিত্র অঙ্গনের অনেকেই এর বিরোধিতা শুরু করেছেন। একপক্ষ চাইছেন আমদানি করতে, আরেক পক্ষের কড়া বিরোধিতা। তাদের অন্যতম মনোয়ার হোসেন ডিপজল। তিনি একাধিক গণমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন। তার সেই বক্তব্যকে ঘিরে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতীয় প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়াসহ আরও বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম।

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির পারিবারিক মিলন মেলায় উপস্থিত হয়ে আবারও হিন্দি ছবি আমদানির বিরুদ্ধে হুংকার দিলেন ডিপজল।

পুনরায় কাফনের কাপড় পরে রাজপথে নামার হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, “ভাষার মাসে কেন হিন্দি সিনেমা আসবে? নিজেদেরই সমাধানের চেষ্টা করতে হবে। গেল ঈদের সিনেমা দিয়ে তো প্রেক্ষাগৃহে দর্শক ফিরেছিল। দর্শকদের জন্য ভালো গল্প উপহার দিতে হবে, তাহলেই তারা হলমুখী হবেন। হিন্দি সিনেমা কোনো সমাধান নয়। ভাষার মাসে হিন্দি সিনেমা আসার প্রশ্নই আসে না। প্রয়োজনে আবারও কাফনের কাপড় পরে রাজপথে নামবো।”

হিন্দি ছবি আমদানি করলে সেটার লাভের ১০% দিতে হবে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক নিপুণের এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে ডিপজল বলেন, “হিন্দি সিনেমার কাছে ১০% দাবি করা বেআইনি, মুনাফিকের কাজ। পারলে কিছু করে দেখাক। তারা কেন হিন্দি সিনেমার কাছে লভ্যাংশ দাবি করবে? তারা যদি শিল্পীদের কল্যাণে কাজ করতে চায় অন্যভাবে করুক। কমিশন নিয়ে কেন করবে?”

হিন্দি সিনেমা সমাধান নয় উল্লেখ করে এই অভিনেতা-প্রযোজক বলেন, “আগে যখন চলচ্চিত্রে অস্থিরতা ছিল, তখন আমরাই উত্তরণ করেছিলাম। সেভাবেই করতে হবে। হিন্দি সিনেমা সমাধান নয়। এ ধরনের চিন্তা না আনাই মঙ্গল। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের সিনেমা নতুন করে আবারো ঘুরে দাঁড়াবে।”

এর আগে ২০১৫ সালেও হিন্দি সিনেমা আমদানি নিয়ে প্রতিবাদের ঝড় উঠে ঢালিউডে। সেবার কাফনের কাপড় পরে রাজপথে নেমে মিছিল করেছিলেন নায়ক-নায়িকা ও এফডিসি সংশ্লিষ্টরা।

About

Popular Links