Sunday, May 26, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

বলিউড অভিনেতা-নির্মাতা সতীশ কৌশিকের চিরপ্রস্থান

‘তেরে নাম’ সিনেমার এই পরিচালকের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলিউডে

আপডেট : ০৯ মার্চ ২০২৩, ০২:৪৮ পিএম

জনপ্রিয় বলিউড অভিনেতা ও নির্মাতা সতীশ কৌশিক মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর।

সতীশ কৌশিকের পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তিনি সকালে গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন। এমন সময় তার হার্ট অ্যাটাক হয়। দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বরেণ্য এই শিল্পী ও নির্মাতার প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে ভারতীয় সিনেমা অঙ্গনে।

সতীশ কৌশিকের সঙ্গে নন্দিত অভিনেতা অনুপম খেরের দীর্ঘ ৪৫ বছরের বন্ধুত্ব। তার প্রয়াণে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত অনুপম টুইটারে লিখেছেন, “সতীশকে ছাড়া জীবনটা কখনও আগের মতো থাকবে না।”

নির্মাতা সুভাষ ঘাই লিখেছেন, “সতীশ কৌশিক এমন একজন মানুষ ছিলেন, যিনি সবসময় হাসিখুশি থাকতেন। এমনকি খুব বাজে পরিস্থিতি বা সংকটেও অন্যদের পাশে থেকেছেন।”

শোকপ্রকাশ করে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেছেন, “ভারতীয় সিনেমায় তার অবদান, শৈল্পিক সৃষ্টি ও পরিবেশনাগুলো চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবে।”

সতীশ কৌশিক ১৯৫৬ সালের ১৩ এপ্রিল পাঞ্জাবের মহেন্দ্রগড়ে জন্মগ্রহণ করেন। ২৩ বছর বয়সে তিনি অভিনয় ও নির্মাণের স্বপ্ন নিয়ে মুম্বাই আসেন। দীর্ঘদিন সংগ্রামের পর ১৯৮৭ সালে “মিস্টার ইন্ডিয়া” সিনেমার মাধ্যমে তিনি প্রথম আলোচনায় আসেন।

এরপর দীর্ঘ ক্যারিয়ারে কমেডি ও অন্যান্য চরিত্রে নিজেকে দারুণভাবে তুলে ধরেছেন সতীশ কৌশিক। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে- “মাসুম”, “সাগর”, “বাড়ে মিয়া ছোটে মিয়া”, “হাম কিসি সে কাম নাহি”, “গড তুসি গ্রেট হো”, “ডাবল ধামাল”, “উড়তা পাঞ্জাব”, “নামাস্তে ইংল্যান্ড”, “ভারত”, “শর্মাজি নামকিন” ইত্যাদি।

নির্মাতা হিসেবে বেশ কয়েকটি দর্শকনন্দিত সিনেমা উপহার দিয়েছেন সতীশ কৌশিক। তার পরিচালিত “তেরে নাম” সিনেমাটি এখনও দর্শকের হৃদয়ে জায়গা করে আছে। এছাড়া “তেরে সাং”, “কার্জ”, “শাদি সে পেহলে”, “কিউ কি”, “হামারা দিল আপকে পাস হ্যায়”, “হাম আপকে দিল মে রেহতে হ্যায়” ইত্যাদি ছবি পরিচালনা করেছেন তিনি।

About

Popular Links