Tuesday, May 21, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

মঞ্চে বেসামাল আচরণ, যা বললেন নোবেলপত্নী সালসাবিল

বিস্মিত সালসাবিলের প্রশ্ন, কীভাবে এতটা বদলে গেল ও

আপডেট : ৩০ এপ্রিল ২০২৩, ০৫:৫২ পিএম

সঙ্গীত বিষয়ক ভারতীয় রিয়েলিটি শো “সারেগামাপা”তে বিখ্যাতদের গান গেয়ে দ্রুত সময়ে পরিচিতির সঙ্গে শ্রোতাদের ভালোবাসাও পেয়েছিলেন মঈনুল আহসান নোবেল।। গানের জগতেও সাফল্য পাওয়ার বড় সম্ভাবনা ছিল তার। কিন্তু সেই সম্ভাবনাকে যেন নিজ হাতেই গলা টিপে হত্যা করেছেন তিনি। খ্যাতি অর্জনের চেয়ে তা ধরে রাখা কঠিন- এর যথার্থ উদাহরণ এই তরুণ শিল্পী।

ব্যক্তিজীবন বিতর্কিত কাজকর্ম আর কিংবদন্তি শিল্পীদের আক্রমণের কারণে বারবারই আলোচনায় এসেছেন তিনি। সম্প্রতি কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ি ডিগ্রি কলেজের এক অনুষ্ঠানে গাইতে গিয়ে ‘‘অসংলগ্ন'' আচরণ করে ফের খবরের শিরোনামে এসেছেন নোবেল।

নোবেলের এমন কাণ্ডে অবাক তার স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদও। তিনি বলেন, “নোবেল আগে নমাজ পড়ত। মঞ্চে ওঠার আগেও নমাজ পড়া বাদ যেত না। এমনকি সারেগামাপা অনুষ্ঠানে সবাইকে বসিয়ে রেখেও নমাজ পড়েছে ও। কীভাবে এতটা বদলে গেল ও?”

সালসাবিল আরও বলেন, “ওর (নোবেল) যদি কোনো শারীরিক সমস্যা হতো, তাহলে আমি নিশ্চিত, মানুষ ওর জন্য প্রার্থনা করত। কিন্তু এ সমস্যা মানসিক, তাও মদের কারণে। নোবেল তো প্রথম থেকে এরকম ছিল না। আমিই ওকে চিনতে পারছি না।”

বিতর্ক আর গায়ক নোবেল যেন পরস্পরের যোগ্য সহচর। গায়ক হলেও ব্যক্তিজীবন বিতর্কিত কাজকর্ম আর কিংবদন্তি শিল্পীদের আক্রমণের কারণে বারবারই খবরের শিরোনামে এসেছেন তিনি।


আরও পড়ুন- কলেজের অনুষ্ঠানে নোবেলের ‘অসংলগ্ন' আচরণ, জুতা ছুড়লেন দর্শকরা


এমনকি জাতীয় সঙ্গীত আর তার রচয়িতা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নিয়ে বিরূপ মন্তব্যের কারণে পেয়েছেন আইনি নোটিশ। এছাড়া, বৃদ্ধকে আঘাত করা, পারিবারিক বিবাদ, মাদক নিয়ে তুলকালামসহ নানা কারণেই বিতর্কিত হয়েছেন নোবেল।

গত ১১ এপ্রিল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নোবেল বলেন, “আমার জীবনে প্রতিটি ঘটনা অপ্রত্যাশিতভাবে ঘটেছে, যা হৃদয়বিদারক। হতে পারে তা মাদক ও অ্যালকোহল। আমার মাথায় ৭০টি সেলাই এবং আমার সাবেক স্ত্রী এতে খুশি। আমার ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে গেছে। এখন বাকি আছে শুধু মৃত্যু। তোমাকে স্বাগতম প্রিয়তমা। তোমাকে আলিঙ্গন করতে আমি তৈরি।”

নোবেলের সঙ্গে বিবাহিত জীবনের অবনতির প্রসঙ্গে স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদ জানান, “২০২০ সালে বান্দরবানে ঘটে যাওয়া একটা ঘটনার কারণে আমিই নোবেলকে বিবাহবিচ্ছেদের নোটিশ পাঠিয়েছিলাম। ও তখন নেশায় ডুবে থাকত। যদিও পরে ও ভুল বোঝে নেশা করা কমায়। কিন্তু কয়েকদিন পরে আবার নেশা শুরু করলে আমি আলাদা থাকা শুরু করি। আমাদের এখনও আইনি বিচ্ছেদ হয়নি। কিন্তু তাও ও সবাইকে বলে বেড়াচ্ছে আমাদের নাকি বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেছে।”

তবে তখন না হলেও খুব শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে নোবেলের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ হবে বলেও জানিয়েছেন সালসাবিল।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৭ এপ্রিল) ফুলবাড়ি ডিগ্রি কলেজের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মদ্যপ অবস্থায় নোবেল মঞ্চে গান গাইতে ওঠেন। পরে মঞ্চেই অসংলগ্ন আচরণ করতে শুরু করেন, যা দর্শকদের ক্ষুব্ধ করে তোলে। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত দর্শকরা তার দিকে জুতা ও পানির বোতল ছুড়ে মারেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে আয়োজকরা নোবেলকে মঞ্চ থেকে সরিয়ে নেন।

About

Popular Links