Thursday, May 30, 2024

সেকশন

English
Dhaka Tribune

রাজনীতিবিদের সঙ্গে বাগদান সারলেন পরিণীতি

দুই পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুবান্ধবসহ বাগদানের অনুষ্ঠানে ১৫০ জন অতিথি উপস্থিত ছিলেন

আপডেট : ১৪ মে ২০২৩, ০২:১১ পিএম

রাজনীতিবিদদের সঙ্গে বলিউড অভিনেত্রীদের গাঁটছড়া বাঁধার ঘটনা নতুন কিছু না। এ বছরের শুরুর দিকেই সমাজবাদী পার্টির যুবনেতা ফাহাদ আহমেদের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন বলিউড অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর। রাজনীতির সঙ্গে বলিউডের মেলবন্ধনের সেই তালিকায় এবার যোগ দিচ্ছেন আরেক চিত্রনায়িকা পরিণীতি চোপড়াও।

শনিবার (১৩ মে) দিল্লির ঐতিহ্যবাহী কাপুর্থালা হাউজে পরিণীতি ও রাঘবের বাগদানের অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছে। পাঞ্জাবি রীতিতে অনুষ্ঠিত হয় তাদের আংটি বদলের উদযাপন। এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

মাসখানেক ধরেই আম আদমি পার্টির (এএপি) নেতা রাঘব চাড্ডা এবং চিত্রনায়িকা পরিণীতি চোপড়া শিগগির বিয়ের পিঁড়িতে বসার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। মূলত বিভিন্ন জায়গায় রাঘব চাড্ডা এবং পরিণীতি চোপড়াকে একসঙ্গে দেখার পরই তাদের ঘিরে গুজব সৃষ্টি হয়। তবে রাঘব-পরিণীতি কেউই এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেননি।

তবে বাগদানের পর পরিণীতি চোপড়া নিজেই মুখ খুললেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে নিজের হবু স্বামীর সঙ্গে বাগদানের ছবি আপলোড করেন এ বলিউড অভিনেত্রী। সেখানে দেখা যায়, যুগলের পরনে সাদা পোশাক, অনামিকায় বাগদানের আংটি। একে অপরকে জড়িয়ে ধরে নিজেদের মধ্যেই প্রায় হারিয়ে গিয়েছেন পরিণীতি ও রাঘব।

রাঘব-পরিণীতির পরিবারের সদস্য এবং বন্ধুবান্ধবসহ বাগদানের অনুষ্ঠানে ১৫০ জন অতিথি উপস্থিত। সেই তালিকায় যেমন ছিলেন পরিণীতির চাচাতো বোন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, ফ্যাশন ডিজাইনার মানিশ মালহোত্রার মতো বলিউড তারকারা; তেমনি ছিলেন আদিত্য ঠাকরে, পি চিদম্বরম, পাঞ্জাবের মূখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত সিংহ মানের মতো রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরাও।

গত মার্চে রাঘব চাড্ডা এবং পরিণীতি চোপড়া একত্রে পাপারাজ্জিদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছিলেন। এরপর থেকেই তাদের সম্পর্কের গুঞ্জন শুরু হয়। মাঝে এএপি নেতা সদস্য সঞ্জীব অরোরা এবং অভিনেতা-সঙ্গীতশিল্পী হার্ডি সান্ধু দুজনই রাঘব-পরিণীতি জুটিকে ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য শুভকামনা জানান।

রাঘব চাড্ডা এবং পরিণীতি চোপড়ার সম্পর্কের গুঞ্জন সাম্প্রতিক সময় শুরু হলেও লন্ডনে দুজন একই কলেজে পড়াশোনা করতেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের এক সূত্রের ভাষ্যমতে, আগামী অক্টোবরের শেষদিকে গাঁটছাড়া বাঁধতে পারেন রাঘব-পরিণীতি।

অথচ একসময় কোনো রাজনীতিবিদকে নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিতে রাজি ছিলেন না পরিণীতি চোপড়া। রাঘব চাড্ডার সঙ্গে বিয়ের গুঞ্জন চলাকালে ভাইরাল হওয়া পুরোনো একটি সাক্ষাৎকারে চলচ্চিত্র অভিনেত্রী জানান, আর যাই হোক না কেন তিনি রাজনীতিবিদ বিয়ে করতে চান না।

২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পেয়েছিল পরিণীতি চোপড়া অভিনীত চলচ্চিত্র “হাসি তো ফাঁসি”। সেই সিনেমার প্রচারণার জন্য এক শোতে গিয়ে র‍্যাপিড ফায়ার রাউন্ডের সময় এক পর্যায়ে পরিণীতিকে রাজনীতিবিদদের সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল। প্রশ্নের উত্তরে এ অভিনেত্রী বলেছিলেন, “সমস্যা হলো আমি কোনো রাজনীতিবিদকে বিয়ে করতে চাই না। অনেক ভালো বিকল্প আছে কিন্তু আমি কখনও কোনো রাজনীতিবিদকে বিয়ে করতে চাই না।”

About

Popular Links